বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭
২৯ °সে

আগস্টেই জাতীয় দলের ক্যাম্প!

আগস্টেই জাতীয় দলের ক্যাম্প!
মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।ফাইল ছবি

করোনার সংক্রমণ যেসব দেশে কমে আসতে শুরু করেছে, এরকম কিছু জায়গায় ক্রিকেট ফেরানোর তোড়জোড়ও চলছে। ইংল্যান্ডে ইতিমধ্যে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরে এসেছে। শ্রীলঙ্কায় জাতীয় দলের অনুশীলন হয়েছে। তারা ঘরোয়া ক্রিকেটের প্রস্তুতি নিচ্ছে। বাংলাদেশে পরিস্থিতি এখনো ভালো না হলেও ক্রিকেট ফেরানো নিয়ে চলছে আলোচনা। আর বিসিবির বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা যাচ্ছে ঈদের পরই জাতীয় দলের আবাসিক ক্যাম্প শুরু হতে পারে।

জাতীয় দলের ক্যাম্প শুরু হলে কাদের ডাকা হবে, সেটা নির্বাচকরা মোটামুটি ঠিক করে ফেলেছেন। ৩৮ জনের একটা দলও বানিয়ে ফেলেছেন তারা। আগস্টেই ক্যাম্প শুরু হবে কি না, এ নিয়ে নিশ্চিত কিছু বললেন না প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। তবে তিনি বললেন, তাদের প্রস্তুতি আছে।

এ প্রসঙ্গে তার বক্তব্য, ‘আমরা এর আগেও ক্রিকেটারদের মাঠে ফেরানোর পরিকল্পনা করেছিলাম, সেজন্য বিসিবি সেভাবে মাঠ, জিম এবং অন্যান্য অবকাঠামো প্রস্তুতও করেছিল। কিন্তু করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না থাকায় আমরা পিছিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছি। তবে এবার আমরা আরো স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রিকেটারদের মাঠে ফেরাতে চাচ্ছি। সরকার অনুমোদন দিলে আগস্টের দ্বিতীয় সপ্তাহে ফিটনেস ক্যাম্প শুরু হতে পারে। ৩৮ জনের একটি স্কোয়াড তৈরি হয়েছে। কন্ডিশনিং ক্যাম্প দিয়ে শুরু হবে তাদের যাত্রা। এরপর স্কিলের কাজ।’

এরকম ক্যাম্প হলে সেটা হয়তো আবাসিক ক্যাম্প হতে পারে। অর্থাত্ অংশ নেওয়া ক্রিকেটাররা বিসিবির একাডেমি ভবনেই থাকবেন। সেখান থেকেই অনুশীলনে অংশ নেবেন। তবে এতে জাতীয় দলের তারকা ক্রিকেটাররা রাজি হবেন কি না, এ নিয়ে একটা সংশয় আছে।

পাশাপাশি বিসিবি মনে করছে, ব্যাপারটা এরকম চাইলেই করে ফেলা যাবে তা নয়। বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলছিলেন, ‘এ রকম কিছু করতে হলে অনেক চিন্তাভাবনা করে করতে হবে। আমাদের ক্রিকেটারদের নিরাপত্তার কথা ভাবতে হবে। আমরা খেলা তো ফেরাতেই চাই। সে জন্যই ভেন্যুগুলো প্রস্তুত করা হয়েছিল। কিন্তু হুট করে কিছু করে ফেলা যাবে না। সব কিছু ভাবতে হবে।’ শুধু ভাবনাই নয়, জালাল ইউনুস বলছিলেন, এরকম ক্যাম্প করতে চাইলে সরকারের অনুমোদনও দরকার হবে। তিনি বলছিলেন, ‘আমরা সরকারের নির্দেশনা মেনেই সব খেলা স্থগিত রেখেছি। এখন আবার চালু করতে হলে সরকারের একটা মত তো নিতেই হবে। জানতে হবে, তারা কী ভাবছেন।’

ইত্তেফাক/এসআই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত