বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭
৩০ °সে

নতুনরা চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত

নতুনরা চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত
জাতীয় ফুটবল দলে সুযোগ পাওয়া নতুন মুখ। ছবি: সংগৃহীত

কাতার বিশ্বকাপ বাছাইয়ের জন্য চার জন নতুন মুখ নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ফিনল্যান্ডে জন্ম নেওয়া তারিক কাজী। বাকি যে তিন জন রয়েছেন তারা জাতীয় ফুটবল দলের প্রাথমিক তালিকায় ডাক পাওয়া খুব খুশি এবং রোমাঞ্চিত। জেমি ডে গতকাল ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে কথা বলে জানিয়েছেন নতুনদের জন্য এটা সুযোগ। নিজের জায়গা করে নেবার জন্য সুযোগ করে দিয়েছেন।

দেশি তিন ফুটবলার পুলিশের নাজমুল ইসলাম রাসেল, বাবলু এবং উত্তর বারীধারা ক্লাবের সুমন রেজা চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত। তাদের কণ্ঠে আত্মবিশ্বাসের সুর। তারা নিজের সেরাটা দিতে চেষ্টা করবেন। পুলিশের স্ট্রাইকার বাবলু, বারীধারার স্ট্রাইকার সুমন রেজা ভালো করেই জানেন তাদের পজিশনে আবাহনীর জীবন, বসুন্ধরার মতিন মিয়া রয়েছেন। তার পরও চ্যালেঞ্জ জানিয়েই অনুশীলন মাঠে নামতে চান এ দুই জন।

পুলিশের ফুটবলের ইতিহাসে এবারই প্রথম এক সঙ্গে দুই জন জাতীয় দলের প্রাথমিক তালিকায় ডাক পেয়েছেন। দিনাজপুরের পরশুরাম গ্রামের খ্রিষ্টান ধর্মের ছেলে বাবলু। বাতিল হওয়া এবারের প্রিমিয়ার লিগে দুই গোল করেছিলেন। তার দল পুলিশ পিছিয়ে ছিল ব্রাদার্স এবং বড় দল বসুন্ধরা কিংসের বিপক্ষে। সেই দুই ম্যাচে দুই বার গোল করেন বাবলু। ১-১ গোলে ড্র হওয়া ম্যাচে মূল্যবান পয়েন্ট তুলে এনেছিলেন পুলিশের ফুটবলার বাবলু। একটা বড় ব্যাপারই বটে। কারণ যেখানে বিদেশিদের দাপটে স্ট্রাইকাররা ছিটকে যায় সেখানে বিদেশিদের টপকে দেশি ফুটবলার বিপদ উদ্ধার করেছে। বাহবা পেয়েছেন বাবলু। ২০১৭ সালে পুলিশে যোগ দিলেও ঢাকার মাঠে ফুটবল খেলছেন ২০১২ সাল হতে।

পুলিশের আরেক ফুটবলার টাঙ্গাইলের গোপালপুরের নাজমুল ইসলাম রাসেল সকার ক্লাব, ফরাশগঞ্জ, ব্রাদার্স, মুক্তিযোদ্ধা, চট্টগ্রাম হয়ে এ বছর পুলিশে যোগ দিয়েছেন। তার পজিশনে জামাল ভুইয়া, সোহেল রানা জনি থাকলেও ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার হিসেবে নিজেদের জায়গা পেতে চ্যালেঞ্জ নিয়েছেন। এখন গাজীপুরে অবস্থান করছেন রাসেল। ফোনে জানালেন ফুটবল আমার কাছে চ্যালেঞ্জই মনে হয়। আমার চেষ্টা ২৩ জনে থাকার।

উত্তর বারীধারার স্ট্রাইকার সুমন রেজা বিমানবাহিনীতেও ফুটবল খেলছেন। বিমানবাহিনীর জন্য এটা গৌরবের যে প্রাথমিক তালিকায় ডাক পেয়েছেন সুমন। ঢাকায় গ্রীন ইউনিভার্সিটিতে সমাজ বিজ্ঞান এবং নৃবিজ্ঞান নিয়ে পড়ছেন। চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে ৮ গোল করেছেন তিনি। ফরাশগঞ্জের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক আছে। বললেন, ‘আমার রানিং, চেজিং, হেডিং এবং শুটিং ভালো। আমি যে সুযোগ পেয়েছি সেটা কাজে লাগাতে চাই।’

ইত্তেফাক/এসআই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত