টানা তিন ম্যাচেই হারের লজ্জা পেলো ঢাকা

টানা তিন ম্যাচেই হারের লজ্জা পেলো ঢাকা
ঢাকা বনাম খুলনার ম্যাচ। ছবি: সংগৃহীত

হারের বৃত্তে ঘুরপাক খাচ্ছে বেক্সিমকো ঢাকা। বঙ্গবন্ধু টি টোয়েন্টি কাপে নিজেদের তিন ম্যাচের তিনটিতেই হারের স্বাদ পেলো মুশফিকের ঢাকা। এদিকে ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার পরেও বোলারদের দুর্দান্ত পারফর্মেন্সে জেমকন খুলনা জয় পেয়েছে ৩৭ রানের। খুলনার পক্ষে সর্বোচ্চ রান করেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

খুলনার দেয়া ১৪৭ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে প্রথম বলেই চার হাঁকান তানজিদ হাসান তামিম। তবে তার সেই হাসি স্থায়ী হয়নি। ইনিংসের তৃতীয় বলেই তানজিদকে বোল্ড করেন শুভাগত হোম। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে মোহাম্মদ নাঈম শেখকে বোল্ড করেন সাকিব আল হাসান এবং ওভারটি মেডেনও দেন সাকিব। পরের ওভারেই রবিউল ইসলাম রবিকে আউট করেন শহিদুল ইসলাম।

নিজের দ্বিতীয় ওভারটিও মেডেন দেন সাকিব। ফলে বিশাল চাপে পড়ে বেক্সিমকো ঢাকা। শহিদুলের এক ওভারে ১৮ রান সংগ্রহ করে খোলস থেকে বের হয়ে আসে মুশফিকুর রহিমের দল। তারপর চাপ সামলে ৫৭ রানের জুটি গড়েন মুশফিক ও ইয়াসির আলি। ভয়ঙ্কর হতে থাকা জুটি ভাঙেন হাসান মাহমুদ। দুর্দান্ত এক ডেলিভারিতে ইয়াসিরকে বোল্ড করেন তিনি। এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান করেন ২৯ বলে ২১ রান।

ইয়াসির ফেরার পরে মুশফিকও আর বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকতে পারেননি। শুভাগতের বলে শামীম হাসানের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন মুশফিক। ঢাকার অধিনায়কের ব্যাট থেকে আসে ৩৫ বলে ৩৭ রান। তার ইনিংসে ছিল ৫টি চার। আকবর আলিও ফেরে যান হাসানের শিকার হয়ে।

সাকিব ৪ ওভারে মাত্র ৮ রান খরচায় শিকার করেন ১টি উইকেট। শুভাগত ১৩ রান দিয়ে নেন ৩টি উইকেট। শহিদুল ২৩ রানে ৩টি ও হাসান ২২ রানে ২টি উইকেট নেন।

তার আগে ব্যাটিং করে জেমকন খুলনা সংগ্রহ করে ১৪৬ রান। খুলনাও শুরুতে বিপর্যয়ে পড়েছিল। চতুর্থ উইকেটে ইমরুল কায়েসকে নিয়ে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ৫৬ রানের জুটি খুলনাকে রক্ষা করে। ইমরুল করেন ২৭ বলে ২৯ রান। খুলনার পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৫ রান করেন রিয়াদ। আরিফুল হক করেন ১১ বলে ১৯ রান। শেষ দিকে ছোট্ট ঝড় তোলেন শুভাগত। তিনি করেন ৫ বলে অপরাজিত ১৫ রান।

ঢাকার পক্ষে রুবেল হোসেন ৩টি, শফিকুল ইসলাম ২টি উইকেট শিকার করেন। নাসুম আহমেদ ৪ ওভারে মাত্র ১০ রান খরচায় নেন ১ উইকেট।

আসরে এটি খুলনার দ্বিতীয় জয়। অপরদিকে নিজেদের প্রথম তিন ম্যাচের তিনটিতেই হারল ঢাকা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

জেমকন খুলনা ১৪৬/৮ (২০ ওভার)

রিয়াদ ৪৫, ইমরুল ২৯, আরিফুল ১৯, শুভাগত ১৫*, সাকিব ১১;

রুবেল ৩/২৮, শফিকুল ২/৩৪, নাসুম ১/১০।

বেক্সিমকো ঢাকা ১০৯/১০ (১৯.১ ওভার)

মুশফিক ৩৫, ইয়াসির ২১।

শুভাগত ৩/১৩, শহিদুল ৩/২৩, সাকিব ১/৮, হাসান ২/২২।

ইত্তেফাক/এসআই

Nogod
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত