লটারিতে মাশরাফির ভাগ্য নির্ধারণ

লটারিতে মাশরাফির ভাগ্য নির্ধারণ
মাশরাফি বিন মুর্তজা।ছবি: মোশারফ হোসেন

ফিটনেসের ঘাটতি থাকায় বিসিবি প্রেসিডেন্টস খেলতে পারেননি মাশরাফি বিন মুর্তজা। হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির কারণে বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপের ড্রাফটেই নাম ছিল না তার। তবে বিসিবির পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, ফিটনেস ঠিক হলে টুর্নামেন্টের মাঝ পথে যে কোনো দল চাইলে মাশরাফিকে নিতে পারবে।

গত ১ ডিসেম্বর অনুশীলনে ফিরেছেন বাংলাদেশের সাবেক এই অধিনায়ক। বিসিবি একাডেমিতে তার চার ওভার বোলিংয়ের পরই ক্রিকেটাঙ্গনে শুরু হয়েছে জল্পনা-কল্পনা, কোন দলের হয়ে খেলবেন মাশরাফি?

আজ আনুষ্ঠানিকভাবে ফরচুন বরিশাল ও জেমকন খুলনা জানিয়েছে, মাশরাফিকে পেতে আগ্রহী তারা। বরিশালের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান ও খুলনার ম্যানেজার নাফিস ইকবাল সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন। দুই দল আগ্রহ দেখানোর কারণে মাশরাফির দল নির্ধারণ হতে পারে লটারিতে। যদিও বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই মাশরাফির সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছেন বরিশালের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ডানহাতি এই পেসারকে বরিশালে খেলার প্রস্তাব দিয়ে রেখেছেন। এবং বায়ো-বাবলের অন্তর্ভুক্ত হতে বলেছিলেন।

একাধিক দল আগ্রহী হলে লটারি হবে জানিয়ে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু আগেই বলেছিলেন, ‘একের বেশি কোন দল যদি ওকে চায় সেক্ষেত্রে লটারি করে দেওয়া হবে এবং যদি একটা দলই চায় তাহলে সরাসরি সেই দলে খেলতে পারবে।’

বরিশালের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান গতকাল বলেছেন, ‘আমরা শুরু থেকে মাশরাফিকে নিয়ে কাজ করছিলাম। আমরা পরশু দিন (১ ডিসেম্বর) প্রথম দল হিসেবে অফিসিয়ালি একটি চিঠি দিয়েছি যে, আমরা তাকে পেতে চাই আমাদের দলে।’

গতকাল খুলনার ম্যানেজার নাফিস ইকবাল বলেছেন, ‘মাশরাফি এমন একটা নাম, এমন একটা খেলোয়াড় যাকে সবাই নিতে চাবে। আমরাও আগ্রহ দেখিয়েছি।’ এদিকে পিঠের ইনজুরিতে খুলনা দল থেকে ছিটকে পড়েছেন ডানহাতি পেসার শফিউল ইসলাম। দুটি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। তার জায়গায় পেসার খালেদ আহমেদকে দলে টেনেছে খুলনা। করোনা নেগেটিভ হওয়ার পর দলের সঙ্গে যোগ দিবেন খালেদ।

ইত্তেফাক/এসআই

Nogod
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত