সৈয়দপুরে হারিয়ে যাচ্ছে  গ্রামীণ খেলা

সৈয়দপুরে হারিয়ে যাচ্ছে  গ্রামীণ খেলা
উপজেলার কামারপুকুর এলাকায় হাডুডু খেলছেন স্থানীয়রা —ইত্তেফাক

শুধু চর্চার অভাবে দিনদিন হারিয়ে যাচ্ছে নীলফামারীর সৈয়দপুরের ঐতিহ্যবাহী গ্রামীণ খেলাধুলা। গ্রামীণ কৃষ্টি ও লোকজ ক্রীড়াঙ্গনের জনপ্রিয় এ খেলাগুলো পুনরুদ্ধারে নেই কোনও উদ্যোগ। আর সে কারণেই শিশু-কিশোররা ঝুঁকছে মোবাইল, ভিডিও গেম, জুয়া কিংবা মাদকের দিকে।

এক সময় সৈয়দপুরে হাডুডু, গোল্লাছুট, কানামাছি, গাদল, বৌচি, কুতকুত, দাঁড়িয়াবান্ধা, ইচিং-বিচিং, এলাটিং-বেলাটিং, রুমাল চুরি, লাঠিখেলা, লুকোচুরি ও পাতাখেলা বেশ জনপ্রিয় ছিল। গ্রামীণ জনপদে মাঠ কিংবা ফসল কাটা শেষে ফাঁকা জমিতে শিশু-কিশোররা এসব খেলাধুলায় মেতে উঠত। কিন্তু আজকাল এসব খেলার আয়োজন করা হয় না। খেলাগুলোর নামও জানে না এ প্রজন্মের অধিকাংশ শিশু-কিশোর। সেসব খেলার স্থান দখল করে নিয়েছে ক্রিকেট, ফুটবল, হ্যান্ডবল, হকিসহ নানা আধুনিক খেলাধুলা।

আরো পড়ুন : অষ্টাদশ শতাব্দীর ঢাকার ইতিহাস নিয়ে বিটিভির ধারাবাহিক ‘জিন্দাবাহার’

ক্রীড়া সংগঠক সাবাহাত আলী সাব্বু জানান, প্রাচীন হলেও কোমলমতি শিশু-কিশোরদের কাছে এসব খেলা অনেকটাই নতুন। বাংলার গ্রামীণ খেলাধুলা রক্ষায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও ক্রীড়া সংগঠনগুলোকে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে। এজন্য নিয়মিত এ খেলাগুলোর আয়োজন করতে হবে। সৈয়দপুর ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নাসিম আহমেদ বলেন, বিলুপ্ত ও লুপ্তপ্রায় ঐতিহ্যবাহী এসব খেলা পুনরুদ্ধারে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

ইত্তেফাক/ইউবি

Nogod
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
close