বাংলাদেশে একাডেমি করতে আগ্রহী রাজস্থান রয়্যালস

মুস্তাফিজকে দেশের হয়ে খেলার পরামর্শ
বাংলাদেশে একাডেমি করতে আগ্রহী রাজস্থান রয়্যালস
রাজস্থান রয়্যালস চেয়ারম্যান রনজিত্ বারঠাকুর—সংগৃহিত

আইপিএলের দল কলকাতা নাইট রাইডার্সের কর্মকর্তারাও কয়েক বছর আগে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়াম পরিদর্শন করে গিয়েছিলেন। যদিও ঐ পরিদর্শন পর্যন্ত শেষ, তারপর আর সাড়া পাওয়া যায়নি দলটির পক্ষ থেকে।

বৃহস্পতিবার ( ৪ মার্চ ) আইপিএলের প্রথম আসরের চ্যাম্পিয়ন রাজস্থান রয়্যালসের কর্মকর্তারা ঘুরে গেলেন দেশের হোম অব ক্রিকেট। বিসিবির কর্মকর্তাদের সঙ্গে ঘুরে ঘুরে স্টেডিয়ামের মূল মাঠ, একাডেমি মাঠসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা পরিদর্শন করেন তারা।

রাজস্থান রয়্যালসের নামটা এখন দেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছেও বেশ আগ্রহ জাগানিয়া। কারণ গত মাসে নিলাম থেকে বাংলাদেশের মুস্তাফিজুর রহমানকে ১ কোটি রুপিতে দলে নিয়েছে রাজস্থান।

পরিদর্শন শেষে দলটির চেয়ারম্যান রণজিত্ বারঠাকুর জানিয়েছেন, মূলত বাংলাদেশে একটি ক্রিকেট একাডেমি বানাতে চান তারা। বিসিবির সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক প্রতিভা বাছাইসহ বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা এবং বাংলাদেশে ভক্ত সংখ্যা বাড়ানোর ইচ্ছা তাদের। দলে নিলেও রাজস্থানের চাওয়া মুস্তাফিজ আগে দেশের হয়ে খেলুক।

মিরপুর স্টেডিয়াম পরিদর্শনের কারণ জানাতে গিয়ে গতকাল রাজস্থান চেয়ারম্যান সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘বাংলাদেশে আমরা একটি একাডেমি করতে চাই। যার নাম হবে রয়্যালস একাডেমি। যদিও এটি এখনো ভাবনার মধ্যে আছে। তবে পরিকল্পনা বাস্তবায়নে আমরা উদগ্রীব হয়ে আছি।’ বাংলাদেশে ১৯৮৭ সালে অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপে স্পন্সর হিসেবে যুক্ত ছিলেন রনজিত্ বারঠাকুর।

তিনি আরো বলেছেন, ‘আমি এখানে এসেছি স্টেডিয়ামটি দেখতে যে আমরা কীভাবে বাংলাদেশ, ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলির মধ্যে সহযোগিতা করতে পারি এবং কীভাবে আমরা বিনিময় কার্যক্রমগুলো পরিচালনা করতে পারি সেটা দেখতে।’ দেশের হয়ে শ্রীলঙ্কা সফরে টেস্ট খেলা বাদ দিয়ে আইপিএল খেলাকে বেছে নিয়ে সমালোচিত হয়েছেন সাকিব আল হাসান।

মুস্তাফিজ অবশ্য সে পথে হাঁটেননি। রাজস্থানও বাঁহাতি এ পেসারকে পরামর্শ দিয়েছে, আগে দেশের দায়িত্ব পালন করতে। গতকাল রনজিত্ বারঠাকুর বলেছেন, ‘আশা করি সে (মুস্তাফিজ) আমাদের হয়ে খেলবে যদিও তার দেশের দায়িত্ব আগে, এরপর রাজস্থান রয়্যালস। আমার ধারণা সে জাতীয় দলে ডাক পাবে, যদি সেটা না হয় আমরা তো আছিই।’

বাংলাদেশেও সমর্থক গোষ্ঠী গড়ে তোলার আশা করছে রাজস্থান। রনজিত্ বারঠাকুর বলেছেন, ‘এদেশে আমাদের বেশ ভালো ফ্যান বেইজ আছে। কলকাতা নাইট রাইডার্স ও চেন্নাই সুপার কিংসের পরেই আমাদের ফ্যান বেইজ তিন নম্বরে। অতএব আমরা বাংলাদেশ ও উত্তর-পূর্ব ভারতে আমাদের ফ্যান বেইজ বাড়াতে চাই।’

ইত্তেফাক/এসআই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x