মোহামেডানের পরিচালক পদে নির্বাচনে জমবে খেলা

আব্দুল মুবীন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত সভাপতি
মোহামেডানের পরিচালক পদে নির্বাচনে জমবে খেলা
ছবি: সংগৃহীত

মোহামেডানের নির্বাচনে সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল মোহাম্মদ আব্দুল মুবীন (অব.) আনুষ্ঠানিকভাবে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। তিন প্রার্থীর মধ্যে দুজন মনোনয়ন তুলে জমা দেননি। মুবীন একাই প্রার্থী ছিলেন। আর প্রত্যাহারও করেননি। তাই মুবীন এখন আনুষ্ঠানিকভাবেই মোহামেডানের সভাপতি।

বৃহস্পতিবার বিকালে প্রধান নির্বাচন কমিশনার এডভোকেট এ বি এম রিয়াজুল কবীর কাওছার জেনারেল মোহাম্মদ আব্দুল মুবীনকে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত সভাপতি ঘোষণা করেন। সেনাপ্রধান থাকাকালীন তিনি বিওএর সভাপতির দায়িত্ব পালন করে ছিলেন।

সভাপতি পদটি ছাড়া ১৬টি পরিচালক পদে নির্বাচন হবে। এই পদের প্রার্থী ২০ জন। মোহামেডানের মধ্যে গুঞ্জন ছিল পরিচালক পদেও সবাই বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত হবেন। গত চার দিন ধরেই এই নিয়ে শীর্ষ মহলেও দৌড়ঝাঁপ চলেছে। অতিরিক্ত চার জন নাম প্রত্যাহার করবেন। নির্বাচনি বাতাসটা এমনই ছিল। কিন্তু শীর্ষ মহলের কোনো একজনের ভুল কৌশলে এখন নির্বাচনে লড়াই করতে হচ্ছে ২০ জনকে।

যাদের মধ্যে তিন জন সংসদ সদস্য রয়েছেন। অথচ এই সংসদ সদস্যরা ব্যালট ভোটের জন্য প্রস্তুত ছিলেন না। বিভিন্ন সূত্রের খবর হচ্ছে শীর্ষ মহল হতে ১৬ জনের একটা তালিকা তৈরি করা হয়েছিল। যারা মোহামেডানের জন্য অর্থ সংগ্রহ করবেন। নেতৃত্ব দেবেন। কিন্তু এই ১৬ জনের বাইরে আরো চার জন কামরুন নাহার ডানা, সাজেদ আদেল, মঞ্জুর আলম, এ জি এম সাব্বির মনোনয়ন জমা দেয়। ধারণা ছিল তারা নাম প্রত্যাহার করে নেবেন। মূলত এই নিয়েই গত দুই দিনে মোহামেডানের নির্বাচনে অনেক নাটক হয়ে গেছে।

মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ সময় ছিল বুধবার রাত ৮টা। সেটি বেড়ে রাত ৯টা। সেখান থেকে গতকাল বিকাল ৩টা পর্যন্ত মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ সময় নির্ধারণ হয় বলে মোহামেডান সূত্রে জানা যায়। দুই-তিন দফায় প্রত্যারের সময় বাড়ানোর ঘটনা বিরল। তার পরও কোনো প্রার্থী প্রার্থীতা প্রত্যাহার করতে আসছিল না। পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছিল এমন যে, গোল না হওয়া পর্যন্ত খেলা চলবে। কিন্তু দফায় দফায় সময় বাড়িয়েও ২০ জনের একজনও প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেননি।

শেষ পর্যন্ত গতকাল বিকালে নির্বাচান কমিশন ১৬ পরিচালক পদের জন্য ২০ প্রার্থীর নাম ঘোষণা করে এবং ৬ মার্চ নির্বাচন হবে। ১৬ প্রার্থী হলেন দা’তে একরামুল হক, মঈন উদ্দিন হাসান রশিদ, মোস্তাকুর রহমান, জামাল রানা, মাসুদুজ্জামান, সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশিদ, সংসদ সদস্য আবদুস সালাম মুর্শেদী, সংসদ সদস্য শফিউল ইসলাম, আবু হাসান চৌধুরী প্রিন্স, মোস্তফা কামাল, খুজিস্তা নুর ই নাহরিন, সিদ্দিকুর রহমান, কবীর আহমেদ ভুইয়া, মাহবুব আনাম, হানিফ ভুইয়া, গোলাম মোহাম্মাদ আলমগীর।

তালিকার বাইরে আছেন চার প্রার্থী কামরুন নাহার ডানা, সাজেদ আদেল, মঞ্জুর আলম, এ জি এম সাব্বির। ডানা বলেন, মোহামেডানে আমার অবদানের কথা অনেকেই ভুলে গিয়ে নতুন একজন নারীকে এনে পরিচালক পদে বসানোর চেষ্টা করছেন কিছু কর্মকর্তা।

ইত্তেফাক/এসআই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x