এশিয়া কাপ হবে কি?

এশিয়া কাপ হবে কি?
ছবি: সংগৃহীত।

করোনা মহামারির কারণে ২০২০ সালে এশিয়া কাপ স্থগিত করা হয়েছিল। এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) ঘোষণা অনুযায়ী চলতি বছর জুনে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা উপমহাদেশের বিশ্বকাপ খ্যাত এ টুর্নামেন্ট।

কিন্তু নতুন করে এশিয়া কাপের আকাশে অনিশ্চয়তার মেঘ ভর করেছে ভারত আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে উন্নীত হওয়ায়। মোতেরায় গত শনিবার ইংল্যান্ডকে হারিয়ে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ফাইনাল নিশ্চিত করে কোহলির দল। আইসিসির সূচি অনুযায়ী ১৮ জুন লর্ডসে শুরু হবে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল।

এসিসি এখনও আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়নি এশিয়া কাপ নিয়ে। তবে কিছুদিন আগে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) সভাপতি এহসান মানি বলেছেন, এশিয়া কাপ হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ যদি ভারত টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে উঠে। কারণ দুই টুর্নামেন্টের দিনক্ষণ মিলে যাচ্ছে।

এশিয়া কাপের ভবিষ্যৎ সম্পর্কে জানতে চাইলে মিরপুর স্টেডিয়ামে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেছেন, ‘এশিয়া কাপের পুরো বিষয়টা কিন্তু এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের একটি বিষয়। যদিও আমরা পূর্ণ সদস্য হিসেবে এটার সঙ্গে সম্পৃক্ত। তবে এ ধরণের কোন বিষয়ে জানতে আমি মনে করি এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের সঙ্গে যোগাযোগ করা ভালো হবে।’ চলতি বছর ভারতে টি-২০ বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্বকাপের কারণে এশিয়া কাপও হবে টি-২০ ফরম্যাটে।

শেষ পর্যন্ত এশিয়া কাপ না হলে এই সময়ে ঘরোয়া টুর্নামেন্ট আয়োজনের চিন্তা করছে বিসিবি। বিসিবির প্রধান নির্বাহী গতকাল বলেছেন, ‘আমরা যদি এ ধরনের একটা সময় ফাঁকা থাকে আমরা চেষ্টা করব যে সেই সময় কোনো ঘরোয়া টুর্নামেন্টের কোনো সময় চূড়ান্ত করা যায় কিনা। আমরা এখনও কাজ করছি বিষয়টা নিয়ে, আমাদের ক্রিকেট বর্ষপঞ্জি নিয়ে এবং আমরা চেষ্টা করছি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এটাকে প্যানেল করে একটা পূর্ণাঙ্গ ক্রিকেট বর্ষপঞ্জি বোর্ডকে উপস্থাপন করা।’

এদিকে এপ্রিলের মাঝামাঝি আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অধীনে দুটি টেস্ট খেলতে শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে বাংলাদেশ দল। পরে তিনটি ওয়ানডে খেলতে ২০ মে তথা ঈদুল ফিতরের পরপরই বাংলাদেশ সফরে আসবে লঙ্কানরা।

বিসিবির প্রধান নির্বাহী বলেছেন, ‘আমরা আশা করছি আমাদের টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের খেলার পরে আমাদের সাথে শ্রীলঙ্কার হোম সিরিজ হবার কথা, তিন ম্যাচের ওডিআই সিরিজ। এই তিনটা ম্যাচ খেলার জন্য শ্রীলঙ্কা মে’র ২০ তারিখের দিকে বাংলাদেশে আসবে এবং ঈদের পরে যত দ্রুত সম্ভব।’

ইত্তেফাক/এসআই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x