মাবিয়া মারজান এবং অন্তরা স্বর্ণ জিতেছেন

রোলবলে আনসারের দাপট
মাবিয়া মারজান এবং অন্তরা স্বর্ণ জিতেছেন
ছবি: প্রতীকী।

দেশের অনেক ক্রীড়াবিদই স্বর্ণ জয় করতে পারেননি। তারকা তিন ক্রীড়াবিদ বাংলাদেশ গেমসের সপ্তম দিনে স্বর্ণপদক জয় করেছেন। ভারোত্তোলনে মাবিয়া আক্তার সীমান্ত, কারাতে লড়াইয়ে হুমায়ারা আক্তার অন্তরা, মারজান আক্তার প্রিয়া এবং মাইনু প্রু মারমা স্বর্ণপদক পেয়েছেন। এছাড়াও পুরুষ লড়াইয়ে স্ন্যাচে রেকর্ড গড়েছেন ২০১০ এসএ গেমসে রৌপ্য জয়ী ভারোত্তোলক মনোরঞ্জন রায়।

নেপালে কাঠমান্ডু এসএ গেমস কারাতে লড়াইয়ে অন্তরা এবং মারজান স্বর্ণপদক জয় করেছিলেন। সেই দুই কারাতেকা গেমসে খুব একটা আলো ফেলতে পারছিলেন না। গতকাল আগের দিন অন্তরা ব্যর্থ হয়েছিলেন। কাল সেই অন্তরা স্বর্ণপদক জয় করে প্রাণ খুলে হেসেছেন।

কারাতের খেলাটা হচ্ছে বান্দরবানে। অনূর্ধ্ব-৬১ কেজি ওজন কুমিতে আনসারের অন্তরা স্বর্ণ জয় করেন। বান্দরবানের মেসাই ওয়াং রৌপ্য জয় করেন। ৫৫ কেজি শ্রেণি কুমিতে সেনাবাহিনীর মারজান আক্তার প্রিয়া স্বর্ণ, আনসারের সুমি রৌপ্য, গাজীপুরের নাঈমা সিকদার এবং সিরাজগঞ্জের কামরুন নাহার হ্যাপী ব্রোঞ্জ পেয়েছেন।

মাবিয়া আক্তার সুলতানা গৌহাটি এসএ গেমস ভারোত্তোলনে স্বর্ণ জয় করেছিলেন। সেই মাবিয়া এবার নবম বাংলাদেশ গেমসে অনেক দেরিতে স্বর্ণপদকের দেখা পেলেন। ৬৪ কেজি ওজন বিভাগে স্ন্যাচে ৮০ কেজি ও ক্লিন অ্যান্ড জার্কে ১০১ ওজন তোলেন মাবিয়া।

ফুটবলার মাইনু মারমা জিতলেন তায়কোয়ানডোর স্বর্ণ

জাতীয় ক্রীড়া পরিষদে তায়কোয়ানডোতে ক্রীড়াবিদদের গগনবিদারী আওয়াজ। একের পর এক খেলা চলছে। আর চার পাশে অন্য ক্রীড়াবিদদের করতালি। এতো খেলোয়াড়ের মধ্যে ফুটবলার মাইনু প্রু মারমা সবার আলো কেড়ে নিলেন। এই ফুটবলার তায়কোয়ানডোতে কাল দুটি স্বর্ণপদক জয় করেছেন। আনসারের এই ক্রীড়াবিদ বাসায় সাড়ে তিন বছরের একটি কন্যা সন্তান রেখে এসেছেন। মাইনু এবং সুইনু এই দুটি নাম দেশের ক্রীড়াঙ্গনে পরিচিত। কতারন দুজনেই জাতীয় নারী ফুটবল দলে খেলেছেন। এসএ গেমস ফুটবলে দুই বার ব্রোঞ্জ পেয়েছিলেন মাইনু মারমা। পাকিস্তানে ফুটবল খেলতে গিয়ে মালদ্বীপ এবং আফগানিস্তানের বিপক্ষে গোলও করেছিলেন তিনি। এখন নারী লিগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া এফসি দলে খেলছেন মাইনু। খেলা বন্ধ সেই ফাঁকে বাংলাদেশ গেমস তায়কোয়ানডোতে লড়াই করলেন দুই ইভেন্টে। স্বর্ণ জিতে চমক দিলেন তিনি। মাইনুর পেছনে দাঁড়ানো তায়কোয়ানডো ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান রানা বললেন, ‘দেখতেও সুন্দর, খেলেও ভালো।’

গেমস ফুটবলে সেনাবাহিনী চ্যাম্পিয়ন

কুমিল্লার ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত নবম বাংলাদেশ গেমস ফুটবলে সেনাবাহিনী ২-০ গোলে সিলেটেকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। প্রথমার্ধে ইমন এবং দ্বিতীয়ার্ধের শেষ মুহূর্তে সঞ্জয় গোল করেন। তৃতীয় স্থান নির্ধারণি খেলায় বিকেএসপি ৮-০ গোলে সাতক্ষীরাকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ পদক পেয়েছে। এই ম্যাচে হ্যাটট্টিক করেন পিয়াস, মোরছালিন ২, ফয়সাল ২, তৌহিদুল ১ গোল করেন।

রোলবলে বাংলাদেশ আনসারের দাপট

বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমসের রোলবল প্রতিযোগিতার পুরুষ ও নারী দুই বিভাগেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ আনসার। গতকাল শেখ রাসেল রোলার স্কেটিং কমপ্লেক্সে নারী বিভাগের ফাইনালে বাংলাদেশ আনসার-লেজার স্কেটিং ক্লাবের খেলাটি ড্র হয়, পরে পাঁচ মিনিট গোল্ডেন বল খেলায় বাংলাদেশ আনসার ১-০ গোলে লেজার স্কেটিং ক্লাবকে হারিয়ে শিরোপা জিতে। পুরুষ বিভাগের ফাইনালে বাংলাদেশ আনসার ২-০ গোলে লেজার স্কেটিং ক্লাবকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়।

ইত্তেফাক/টিআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x