মেসি-রোনালদোদের অভয় দিলেন পেরেজ

মেসি-রোনালদোদের অভয় দিলেন পেরেজ
ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ। ছবি: সংগৃহীত

রুদ্ধশ্বাস সভা শেষে উয়েফা সভাপতি আলেকসান্দার সেফেরিনের কড়া হুঁশিয়ারি—‘বিদ্রোহী লিগ’ ইউরোপিয়ান সুপার লিগে অংশ নেওয়া ক্লাবের হয়ে খেললেই দেশের হয়ে খেলার অধিকার হারাবেন ফুটবলাররা। এখন পর্যন্ত সুপার লিগ খেলতে ১২টি ক্লাব সম্মত হয়েছে। সেই ১২ ক্লাবে নারী-পুরুষ এবং একাডেমি খেলোয়াড় মিলিয়ে কমপক্ষে হাজার ফুটবলার রয়েছে। আর উয়েফার এই নীতি সবার ক্ষেত্রেই সমানভাবে প্রযোজ্য হবে বলে সোমবার সেফেরিন আরো এক বার স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন ।

সুপার লিগ নিয়ে যখন কানাঘুষা শুরু হয়, তখনই উয়েফা জানিয়ে রেখেছিল এই লিগে খেললে ফুটবলারদের জাতীয় দলের হয়ে বিশ্বকাপ এবং ইউরো খেলার অধিকার হারাতে হবে। সুপার লিগে নাম লেখানো ক্লাব বার্সেলোনার হয়ে খেলেন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক লিওনেল মেসি। জুভেন্টাসের হয়ে খেলেন পর্তুগালের অধিনায়ক ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। সুপার লিগে তাদের ক্লাব নাম লেখানোয় তবে কি চলতি বছর হতে যাওয়া কোপা আমেরিকা এবং ইউরোতে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে দেখা যাবে না মেসি-রোনালদোকে?

এমন প্রশ্নের উত্তর খুঁজতেই এখন ব্যস্ত মেসি-রোনালদোর ভক্তরা। উয়েফার এমন সিদ্ধান্তে যেন কালঘাম ছুটে গেছে বিভিন্ন ফেডারেশনরেও। কাদের নিয়ে বিশ্বকাপ বাছাই, কাদের নিয়ে মেজর টুর্নামেন্টে অংশ নেবে জাতীয় দলগুলো—সেই ভাবনায় এখন চিন্তিত অনেকেই। তবে সুপার লিগের অন্যতম প্রধান উদ্যোক্তা এবং সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ আশ্বস্ত করেছেন সবাইকে। অভয় দিয়েই বলেছেন, উয়েফার খেলোয়াড়দের নিষিদ্ধ করার সেই অধিকার নেই।

সুপার লিগ আয়োজক এবং উয়েফার দ্বন্দ্বের মুখে খেলোয়াড়রা যখন কোনোদিক খুঁজে পাচ্ছেন না, তখনই স্প্যানিশ টিভি শো এল চিরিঙ্গিতোতে এসে মেসি-রোনালদোদের অভয় দিয়ে বলেছেন, ‘সব খেলোয়াড় এ ব্যাপারে নিশ্চিন্তে থাকুন। কারণ, এটা (নিষেধাজ্ঞা) হবে না। তারা সুপার লিগ খেললে নিষিদ্ধ হবে না।’

শুধু খেলোয়াড়দের নয়, উয়েফা ভয় দেখিয়েছে বর্তমানে তাদের দুই টুর্নামেন্ট চ্যাম্পিয়নস লিগ ও ইউরোপা লিগে টিকে থাকা ক্লাবগুলোকে যারা সুপার লিগে নাম লিখিয়েছে। এবারের চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিতে উঠেছে চেলসি, রিয়াল, পিএসজি এবং ম্যানসিটি। যেখানে পিএসজি বাদে তিন দলই আছে সুপার লিগের প্রতিষ্ঠাতা দল হিসেবে। জানা গেছে, এই তিন দলকেই সেমিফাইনাল মাঠে গড়ানোর আগেই বহিষ্কার করে পিএসজিকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হবে। এছাড়া লিগ পর্যায়েও বার্সা-রিয়াল, ম্যানসিটি-ম্যানইউদের পয়েন্ট কেটে রাখার পক্ষে দাবি উঠেছে। তবে পেরেজ বেশ ঠাণ্ডা মাথার জবাবে সব শঙ্কা উড়িয়ে দিয়েছেন। ক্লাবগুলোকে ইচ্ছাকৃতভাবে বাদ দেওয়ার কোনো ক্ষমতাও উয়েফার নেই বলে দাবি তার, ‘চ্যাম্পিয়নস লিগ বা ঘরোয়া লিগ থেকে রিয়াল মাদ্রিদ, ম্যানচেস্টার সিটি কিংবা চেলসি নিষিদ্ধ হবে না। এটা অসম্ভব, আমি আপনাকে এ ব্যাপারে নিশ্চয়তা দিচ্ছি। শতভাগ নিশ্চিত থাকুন, এটা হবে না। আইন আমাদের পক্ষে আছে। এটা অসম্ভব।’

ইত্তেফাক/টিএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x