আমাদের সামর্থ্য আছে সিরিজ জেতার: সুজন

আমাদের সামর্থ্য আছে সিরিজ জেতার: সুজন
শ্রীলঙ্কা সফরে পরখ করার পর হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর পাশেই থাকছেন খালেদ মাহমুদ সুজন। গতকাল অনুশীলনে এক ফ্রেমে তারা —ইত্তেফাক

সূচি অনুযায়ী ঈদুল ফিতরের আগে গতকালই ছিল জাতীয় দলের অনুশীলনের শেষ দিন। শ্রীলঙ্কাফেরত ক্রিকেটাররা কোয়ারেন্টাইন শেষে মাঠে নামার অনুমতি পেতে বিলম্ব হয়েছে। তাই অনুশীলনও ঐচ্ছিক করা হয়েছিল। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের জন্য আজও অব্যাহত থাকবে ঐচ্ছিক অনুশীলন।

করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ রিপোর্ট পেয়ে গতকাল অনুশীলনে এসেছিলেন মুশফিকুর রহিম-তাসকিন আহমেদরা। তামিম ইকবাল, নাজমুল হোসেন শান্ত, শরীফুল ইসলাম ছাড়া লঙ্কা সফর থেকে ফেরা সবাই গতকাল অনুশীলনে যোগ দেন। পুরোদমেই হয়েছে অনুশীলন। যেখানে ফিল্ডিংয়েই বেশি জোর দেওয়া হয়েছে।

ঈদের ছুটির পর ১৮ মে শুরু হবে প্রস্তুতির মূল অংশ। লঙ্কানদের বিরুদ্ধে হোম সিরিজ জয়ে পূর্ণ আশাবাদী বিসিবির পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন। বিশ্বকাপ ভাবনায় তরুণদের নিয়ে বাংলাদেশ সফরের দল গড়ছে শ্রীলঙ্কা। সুজনের আশা, নিকট অতীতের ব্যর্থতা ভুলে হোম গ্রাউন্ডে সিরিজ জিতবে টাইগাররা।

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ নিয়ে সুজন গতকাল বলেছেন, ‘নবীন হলেও শ্রীলঙ্কা বেশ শক্ত দল হবে। অবশ্যই আমরা ঘরের মাঠে সিরিজ জিততে চাই। আমি বিশ্বাস করি যে, আমাদের সামর্থ্য আছে সিরিজ জেতার। যদিও বেশ কিছু খেলায় হেরে আমরা ব্যাকফুটে, কিন্তু আমি মনে করি এই ফরম্যাটে আমি বেশ দুর্দান্ত দল।’

তামিম ইকবালের দল সিরিজ জিতবে বলেই বিশ্বাস সুজনের। তিনি বলেছেন, ‘যদিও শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশে কন্ডিশন খুব বেশি ফারাক নেই। তবুও আমাদের হোম গ্রাউন্ড, আমরা চেষ্টা করব নিজেদের সেরা ক্রিকেটটা খেলতে। আমি বিশ্বাস করি সিরিজটা আমরা জিতব।’

হোম কোয়ারেন্টাইন শেষে গতকাল অনুশীলনে এসে ব্যাটিং করেছেন মুশফিক, লিটনরা। তাসকিন, মিরাজরা বোলিং করেছেন। জাতীয় দলের কোচ আছেন বলেই ঈদের ছুটির আগে অনুশীলনের সময়টা কাজে লাগাতে চায় বাংলাদেশ।

গতকাল সুজন বলেছেন, ‘অনুশীলন ঐচ্ছিক ছিল, যেহেতু আমরা সরকারের অনুমতি পেতে দেরি করেছি। অনেকে টিকিট করে চলে গিয়েছে। তারপরও আজকে (গতকাল) অনেকগুলো ছেলে কাজ করেছে। তাও ১৫-১৬ জন হবে। আগামীকালও (আজ) ঐচ্ছিক অনুশীলন রাখা হয়েছে। তাসকিন আজ বোলিং করল, মুশফিক ব্যাটিং করল, এসব আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ছিল।’

শ্রীলঙ্কা সফরের মতো ফিল্ডিংয়ে গলদ চায় না বাংলাদেশ দল। তাই অনুশীলনে গুরুত্ব পাচ্ছে ফিল্ডিং। বিসিবির এ পরিচালক বলেছেন, ‘ফিল্ডিং তো আমাদের নিয়মিত চর্চার একটা ব্যাপার। নিজের ইচ্ছেরও ব্যাপার আছে যে আমি কতটুকু কষ্ট করতে পারি। আমার কাছে মনে হয় মানসিক ব্যাপারটা গুরুত্বপূর্ণ। আমি বিশ্বাস করি, তারা চেষ্টা করছে, ভালো করার জন্য মুখিয়ে আছে তারা।’

ইত্তেফাক/এমআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x