ব্যালন ডি’অরে মেসির প্রতিদ্বন্দ্বী খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না!

ব্যালন ডি’অরে মেসির প্রতিদ্বন্দ্বী খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না!
আরো একটি ব্যালন ডি’অর জয়ের দ্বারপ্রান্তে মেসি। ছবি: সংগৃহীত

এবারের ইউরোতে ইতালি চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় ব্যালন ডি’অরের দৌড়ে কিছু নাম উঠে আসছে। যেখানে সবচেয়ে এগিয়ে আছেন মিডফিল্ডার জর্জিনহো। চেলসির হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের ৬ সপ্তাহ পর ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ জিতে নিয়েছেন তিনি। তার সঙ্গে এই তালিকায় আছেন সতীর্থ এমারসন পালমেইরিও। তবে সব ম্যাচে খেলার সুযোগই না পাওয়া এমারসনকে কেউই তালিকায় রাখছেন না।

ব্যালন ডি’অরে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রাখে বিশ্বকাপ, ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ, কোপা আমেরিকা ও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ। এরমধ্যে ইউরো ও কোপা এ বছর অনুষ্ঠিত হওয়ায় এ দু’টি আসরই রাখবে বড় ভূমিকা। দু’টি আসর শেষ হওয়ায় এবারের ব্যালন ডি’অর কার হাতে উঠতে যাচ্ছে, এ নিয়ে বিশ্লেষন-পর্যবেক্ষণ শুরু করেছে ইউরোপিয়ান গণমাধ্যমগুলো। তবে ইউরোপিয়ান ফুটবলবোদ্ধাদের মতে, রেকর্ড ৬ বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী লিওনেল মেসির হাতেই উঠতে যাচ্ছে আরো একটি ট্রফি।

ইউরো জয়ের পর সবচেয়ে বেশি আলোচনায় জর্জিনহো। তিনি কি চেলসির চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ে সেরা ভূমিকা রেখেছেন? উত্তর: না। জর্জিনহো কি ইতালির ইউরো জয়ে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন? উত্তর: না। ফলে ফুটবলের অন্যতম সেরা দুই ট্রফি হাতে উঠলেও, ব্যালন ডি’অর হাতে নিতে পারবেন কিনা জর্জিনহো, সেটি এখনো নিশ্চিত নয়।

একইসঙ্গে আরো কিছু নামও আছে তালিকায়। এদের একজন ইতালিয়ান অধিনায়ক জর্জিও কিয়েলিনি। যদিও ২০০৬ সালে বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ফ্যাবিও ক্যানাভারোর পর এখন পর্যন্ত কোন ডিফেন্ডারের হাতে উঠেনি ফুটবলের সবচেয়ে প্রেস্টিজিয়াস এই ট্রফি। ইউরো জেতার পর এবার উঠে আসছে কিয়েলিনির নাম। তবে গেল মৌসুমে য়্যুভেন্তাসের হয়ে খুব একটা ভালো সময় কাটেনি তার। এছাড়া ইনজুরির কারণে বেশকিছু ম্যাচও মিস করেছেন তিনি। ফলে তাকে বিবেচনা করা হলেও, শেষপর্যন্ত শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী হতে পারবেন কিনা তিনি, সেটি এখনো নিশ্চিত নয়।

আর্জেন্টিনার ২৮ বছরের ট্রফিখরা কাটিয়ে এবছর কোপা আমেরিকা জিতে নেয়া লিওনেল মেসিকে এড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ এমনকি সমালোচকদেরও থাকছে না এবার। আসরের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। গোল্ডেন বুট, গোল্ডেন বল সবই জিতেছেন তিনি। সঙ্গে অধরা ট্রফিটাও জেতা হয়েছে তার।

দেশের হয়ে তো বটেই, ক্লাবের হয়েও দুর্দান্ত একটা মৌসুম কাটিয়েছেন মেসি। গেল মৌসুমে লা লিগার সর্বোচ্চ গোলদাতা ও সর্বোচ্চ অ্যাসিস্টদাতা নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। ক্লাবের হয়ে লিগ ট্রফি জিততে না পারলেও, কোপা দেল রে জিতেছেন ক্ষুদে জাদুকর। যেখানে ফাইনালে জোড়া গোলও করেছেন তিনি।

ফলে এবারের ব্যালন ডি’অরের জন্য মেসির বিকল্প কাউকে খুঁজে বের করা দুষ্করই হবে আয়োজকদের জন্য। যেমনটা জানিয়েছেন বার্সেলোনার কোচ রোনাল্ড কোম্যানও। তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, এবছর ব্যালন ডি’অরের জন্য মেসিই ফেবারিট এবং তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীও কেউ নেই।

দেখার অপেক্ষা বছরশেষে কার হাতে ওঠে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ এই পুরস্কার।

ইত্তেফাক/এএএন

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x