মেসিহীন বার্সেলোনা আট-দশটি সাধারণ ক্লাবের মতোই

মেসিহীন বার্সেলোনা আট-দশটি সাধারণ ক্লাবের মতোই
ছবি: টুইটার

মেসি চলে যাওয়ায় বার্সেলোনার সোনালী সময়ও যেন শেষ হয়ে গেছে। অবশ্য এই সময়টা আরও কয়েকবছর আগেই শেষ হয়েছে, যখন জাভি, ইনিয়েস্তা, নেইমার ও সুয়ারেজ ক্লাব ছেড়ে যায়। তবুও মেসি থাকায় দাপট দেখাতে পারতো কাতালানরা। কিন্তু আর্জেন্টাইন অধিনায়কও এই মৌসুমে প্যারিসে পাড়ি জমিয়েছেন। যার অভাব এখন প্রতিটি ম্যাচেই হারে হারে টের পাচ্ছে এক সময়ের বিশ্বসেরা এই ক্লাব।

গতকাল সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) গ্রানাদার বিপক্ষে ম্যাচে প্রায় হেরেই যাচ্ছিল রোনাল্ড কোমানের দল। ঘরের মাঠ ক্যাম্প ন্যুতে একেবারে শেষ মুহূর্তে গোল পরিশোধ করে কোনোরকমে ১-১ ড্র নিয়ে মান বাঁচাতে সক্ষম হয় তারা। এর আগে চ্যাম্পিয়নস লিগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বায়ার্নের কাছে ৩-০ গোলে পরাজয় বরণ করে কাতালান ক্লাবটি। সেটিও ক্যাম্প ন্যুতে অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

Image

সবমিলিয়ে এই মুহূর্তে লা লিগায় ৪ ম্যাচে দুই জয় ও দুই ড্রয়ে ৮ পয়েন্ট হলো বার্সার। পয়েন্ট তালিকায় আছে ৭ নম্বরে। কে বলবে এই দলটিই মেসি থাকাকালীন লিগে রাজত্ব করতো। বর্তমানে লা লিগায় শীর্ষে রয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। ৫ ম্যাচ খেলে তাদের পয়েন্ট ১৩।

No description available.

সেটিই যেন রোনাল্ড কোমানের কন্ঠে প্রকাশ পেল। তার অবস্থা এখন এমন, ছেড়ে দে মা কাইন্দা বাঁচি। গতকাল ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আট বছর আগে যে বার্সেলোনা ছিল, সেটি এখন আর নেই। আমরা বার্সেলোনার মতো খেলেছি ঠিকই! কিন্তু সেই গতি নেই। কুতিনিও, দেমির কেউই প্রতিপক্ষ বক্সের ভেতরে ঢুকতে পারছে না। তবে ফাতি ও দেম্বেলে ফিট হয়ে গেলে পরিস্থিতি কিছুটা পাল্টাবে বলে বিশ্বাস করি।’

No description available.

সমালোচকরা বলছেন, এই বার্সেলোনা দলটিতে এখন আর কোনো বিশেষত্ব নেই। এটি বিশ্বের অন্যান্য আট-দশটি সাধারণ ক্লাবের মতোই। এমনকি দলটির খেলার যে পদ্ধতি ‘টিকিটাকা’, সেটিও হারিয়ে গেছে। বার্সা কোচ বলেন, ‘আমাদের খেলোয়াড় তালিকাটা একবার দেখুন। এই দল নিয়ে টিকিটাকা ফুটবল খেলব কীভাবে? মাঠে প্রতিপক্ষ আপনাকে জায়গা দিচ্ছে না, আপনিও গতি দিয়ে জায়গা বের করতে পারছেন না। এমন অবস্থায় টিকিটাকা খেলব কীভাবে!’

ইত্তেফাক/টিএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x