ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
২৭ °সে


ঘুরে দাঁড়াতে চায় দক্ষিণ আফ্রিকা

ঘুরে দাঁড়াতে চায় দক্ষিণ আফ্রিকা
ফাইল ছবি

কুসল পেরেরার বীরোচিত ইনিংসের কাছে প্রথম টেস্টে পরাজিত হওয়ার পর আগামীকাল সেন্ট জর্জেস পার্কে শ্রীলংকার বিপক্ষে শুরু হওয়া দ্বিতীয় ম্যাচে ঘুরে দাঁড়াতে চায় স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা।

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে প্রথম টেস্ট জয়ে কার্যকর ইনিংস খেলে শ্রীলংকার জাতীয় বীর-এর পরিণত হয়েছেন পেরেরা। মূলত তার অপরাজিত ১৫৩ রানের সুবাদেই এতিহাসিক এ জয়ের মুখ দেখে লংকানরা।

নাটকীয়ভাবে এক উইকেটে পাওয়া জয়ে যদিও শিরোনাম হয়েছেন পেরেরা। তবে নতুন অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া দিমুথ করুনারত্নে প্রতিটি সেশনেই চ্যালেঞ্জের মোকাবেলা করেছেন। শ্রীলংকা দলের বোরিং আক্রমণ বিভাগ বেশ শক্তিশালী। তথাপি প্রতিপক্ষকে ছোট করে দেখেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ডারবান টেস্টে একমাত্র স্পিনার কেশব মহারাজ এবং চার পেসার নিয়ে খেরলেও আগামী ম্যাচে কৌশলে পরিবর্তন আনতে পারে দক্ষিণ আফ্রিকা। পরাজিত হওয়া ম্যাচে দলে স্বীকৃত ব্যাটসম্যান ছিল কেবলমাত্র পাঁচ জন।

বাঁ-হাতি সুয়িং বোলার বিশ্ব ফার্নান্দো এবং বাঁ-হাতি স্পিনার লাসিথ এম্বুলদেনিয়া যথাক্রমে আট ও ছয় উইকেট শিকার করায় স্বাগতিক ব্যাটসম্যানদের ধুকতে হয়েছে। ব্যতিক্রম ছিলেন কেবলমাত্র অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস ও কুইন্টন ডি কক। ডারবানে দলের ব্যাটিং যাচ্ছেতাই ছিল স্বীকার করেছেন ডু প্লেসিস।

দ্বিতীয় ম্যাচে স্বাগতিক দলে একজন অতিরিক্ত ব্যাটসম্যান খেলানোর বিষয়টি অনেকটাই নিশ্চিত। সে ক্ষেত্রে তিউনিস ব্রুইয়ান অথবা জুবায়ের হামজার মধ্যে একজন দলে আসতে পারেন। বোলিং বিভাগে তিন ফাস্ট বোরার এবং আরো একজন স্পিনার রাখতে পারে তারা। হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির কারণে শ্রীলংকার দ্বিতীয় ইনিংসে বোলিং করেননি ওপেনিং বোরার ভারনন ফিলান্ডার।

তিনি সুস্থ না হলে অন্য কাউকে নেয়া হতে পারে। অবশ্য অভিষেক হতে পারে অলাউন্ডার উইয়ান মুলডারেরও। এশিয়ান প্রতিপক্ষের বিপক্ষে নিজেদের শট পিচ বোলিংয়ের বিষয়টিও পুনঃচিন্তা করতে পারে দক্ষিণ আফ্রিকা। ডারবানে এটা কাজে আসেনি। পোর্ট এলিজাবেথেও পেস ওবাউন্স খুব বেশি থাকেনা।

ডারবান টেস্টের আগে টেস্ট র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে থাকা ভারতের সঙ্গে দলের দীর্ঘ দিনের পয়েন্ট ব্যবধান কমানোর কথা বলেছিলেন ডু প্লেসিস।

র‌্যাংকিংয়ে ছয় দাপ পিছিয়ে তাকা লংকানদের হোয়াইটওয়াশ করতে পারলে ভারতের সঙ্গে চার পয়েন্ট ব্যবধানে চলে আসতে পারত দক্ষিণ আফ্রিকা।

এখন তাদের একমাত্র লক্ষ্য দ্বিতীয় টেস্ট জিতে সিরিজে সমতা আনা এবং এক নাগারে সাত সিরিজে অপরাজিত থাকার রেকর্ড অক্ষুন্ন রাখা।

এমনকি পোর্ট এলিজাবেথে জিতলেও ভারতের সঙ্গে আরো দুই পয়েন্ট ব্যবধান বাড়বে স্বাগতিকদের। আর যদি এ ম্যাচ হারে কিংবা ড্র করে তবে বর্তমানে তৃতীয় স্থানে তাকা নিউজিল্যান্ডেরও নিচে নেমে যাবে প্রোটিয়ারা।

জর্জেস পার্কে নিজেদের শেষ ছয় টেস্টের মধ্যে পাঁচটিতে জয়ী হয়েছে এবং একটি ড্র করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। যার মধ্যে আছে দুই বছর আগে এই লংকানদের বিপক্ষে ২০৬ রানের জয়টিও। গত মৌসুমে অবশ্য ডারবানে প্রথম টেস্টে হারার পরও পোর্ট এলিজাবেথে ছয় উইকেটে জয়ী হয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজে ঘুরে দাঁড়িয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা।

শ্রীলংকার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে ভাল করতে না পারা রাবাদা ফিরছেন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১১ উইকেট শিকার করা ভেন্যুতে।

দল (সম্ভাব্য) : ফাফ ডু প্লেসিস(অধিনায়ক), ডিন এলগার, আইডেন মার্করাম, হাশিম আমলা, টেম্বা বাভুমা, তিউনিস ডি ব্রুইন, জুবায়ের হামজা, কুইন্টন ডি কক (উইকেটরক্ষ), উইয়ান মুলডার, ভারনন ফিলান্ডার, কেশব মহারাজ, কাগিসো রাবাদা, ডেল স্টেইন, ডুয়ানে অলিভার। শ্রীলংকা(সম্ভাব্য) : দিমুথ করুনারত্নে (অধিনায়ক), লাহিরু থিরিমান্নে, কুসল মেন্ডিস, ওশাদা ফার্নান্দো, কুসল পেরেরা, নিরোশান ডিকবেলা (উইকেটরক্ষক), ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, সুরাঙ্গা লাকমাল, লাসিথ এম্বুলদেনিয়া, কাসুন রাজিথা, বিশ্ব ফার্নান্দো।

ইত্তেফাক/এএম

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২৩ মে, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন