ঢাকা সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬
৩১ °সে


কপাল পুড়তে পারে নান্নু-সুমনের

কপাল পুড়তে পারে নান্নু-সুমনের
মিনহাজুল আবেদীন নান্নু ও হাবিবুর বাশার সুমন। ছবি-সংগৃহীত

বিসিবির নির্বাচক প্যানেলের দুই সদস্য মিনহাজুল আবেদীন নান্নু ও হাবিবুর বাশার সুমনকে নাও রাখা হতে পারে। এই দুজনের মধ্যে নান্নু রয়েছেন প্রধান নির্বাচক হিসেবে। তাদের সঙ্গে চলতি বছর জুন পর্যন্ত বিসিবির চুক্তি ছিল। সেই চুক্তি আর বাড়ানো হচ্ছে না বলে বিসিবি সূত্রে জানিয়েছে ক্রিকবাজ। আগামী ২৭ জুলাই বিসিবির পরিচালনা পর্ষদের সভায় এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে।

চলমান শ্রীলঙ্কা সফরে মিনহাজুল আবেদীন নান্নুর দলের সঙ্গে যাওয়ার কথা ছিল। তবে সোমবার বিসিবির নিশ্চিত করেছে সফর চলাকালে পরফরমেন্স পর্যালোচনার জন্য তাকে পাঠানো হচ্ছে না। মূলত আফগানিস্তানের সঙ্গে ‘এ’ দলের ব্যর্থতার পরই নির্বাচকদের কাজের বিষয়ে পর্যালোচনা হচ্ছে।

প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু অবশ্য কাজ চালিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী। তিনি মনে করেন ‘এ’ দলের পারফরমেন্সে সামগ্রিক অবস্থার প্রতিফলন ঘটৈনি। কারণ একই সময়ে ভারতে বিসিবি একাদশে কয়েকজন ভালো ক্রিকেটার চলে যান। যে কারণে ‘এ’ দলটা পরিপূর্ণ শক্তির ছিল না।

আরও পড়ুন : নীলফামারীতে বজ্রপাতে কৃষকের মৃত্যু

মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেছেন, আমি এই প্যানেলে তিন বছর ধরে আছি। আমি মনে করি যথেষ্ট ভালো করেছি। হাইপারফরমেন্স টিমের সঙ্গে কাজ করেছি, তারাও বেশ ভালো। ‘এ’ দলের সঙ্গেও কাজ করেছি। তারা বেশ কিছু ম্যাচ খেলেছে। জাতীয় দলও অনেক ভালো খেলেছে। যদি গত বছরের পারফরমেন্স দেখেন তবে আমরা ৫২ শতাংশ ম্যাচ জিতেছি। এটা বিরাট অর্জন। আমরা র‌্যাঙ্কিংয়েও উন্নতি করেছি। লঙ্গার ভার্সনেও আমরা ভালো করছি। যদি আমাকে আরেকটি সুযোগ দেয়া হয়, তাহলে আমি অবশ্যই ভালো কিছু করার চেষ্টা করব।

তবে এ ইবষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতা বোর্ডের বলেও উল্লেখ করেন নান্নু। তিনি বলেন, (আমি থাকব কি না) সেটা বোর্ডের সিদ্ধান্ত। এটা তাদের উপর নির্ভার করছে। যদি আমাকে রাখা হয় তবে অবশ্যই ভালো কিছু করার চেষ্টা করব।

ইত্তেফাক/কেআই

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২৬ আগস্ট, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন