ঢাকা রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬
২৭ °সে


টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ নিয়ে রোমাঞ্চিত মুমিনুল

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ নিয়ে রোমাঞ্চিত মুমিনুল
মুমিনুল হক। ছবি-সংগৃহীত

অ্যাশেজ দিয়ে শুরু হয়ে গেছে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ। আইসিসির দুই বছর মেয়াদি এই চ্যাম্পিয়নশিপের কাঠামোতে বাংলাদেশ পা রাখবে আগামী নভেম্বরে। ভারত সফরে দুই টেস্টই হবে চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ। তার আগে নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছে বাংলাদেশ। আগামী মাসেই ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে একটি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ বাংলাদেশের জন্য কার্যত শাপেবর হয়েই এসেছে। এতদিন টেস্ট ম্যাচ খেলার জন্য হাহাকার থাকলেও এই চ্যাম্পিয়নশিপের আওতায় প্রতি বছর ছয়-সাতটি টেস্ট নিশ্চিতভাবেই খেলতে পারবে বাংলাদেশ। আর সাদা পোশাকের ক্রিকেটের মহা সমারোহ দেখে যারপরনাই খুশি মুমিনুল হক।

হাল সময়ে দেশের অন্যতম পরিপূর্ণ ব্যাটসম্যান হয়েও যার নামের পাশে এখনো ‘টেস্ট স্পেশালিস্ট’ তকমাই শোভা পায়। ক্রিকেটের বাকি ফরম্যাটগুলোতে ব্রাত্য হয়ে থাকে তার নাম। যদিও টেস্টে তার সাফল্য দুর্দান্ত। তাই নির্বাচকরা এখন আর অন্য ফরম্যাটে বিবেচনা করেন না মুমিনুলকে।

আরও পড়ুন : নিউইয়র্কের জ্যামাইকায় জাতীয় শোক দিবস পালিত

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ চালু হওয়া বাংলাদেশের জন্যই ভালো বলে উল্লেখ করেছেন মুমিনুল। গতকাল মিরপুর স্টেডিয়ামে বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান বলেছেন, ‘আমার মনে হচ্ছে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ হওয়াতে আমাদের দেশের জন্য ভালো হয়েছে। আমাদের বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য ভালো হয়েছে। ব্যক্তিগতভাবে আমি খুব খুশি। কেননা টেস্ট ক্রিকেট আমাদের দেশে ওভাবে ফোকাস হয় না। ঐদিক দিয়ে চিন্তা করলে আমাদের দেশের জন্য খুবই ভালো হয়েছে।’

চ্যাম্পিয়নশিপের আওতায় টেস্ট ম্যাচ বাড়বে বাংলাদেশের। বেশি ম্যাচ খেললে র‌্যাঙ্কিংয়েও উত্তরণের সুযোগ থাকবে বলে মনে করেন মুমিনুল। বর্তমানে টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে নবম স্থানে রয়েছে বাংলাদেশ।

ক্যারিয়ারে ৩৫ টেস্টে আটটি সেঞ্চুরির মালিক মুমিনুল বলেন, ‘ম্যাচ না খেললে একরকম। কিন্তু ম্যাচ খেললে পারফর্ম করার সুযোগ বাড়বে আপনার। ফলাফল ভালো করার সুযোগ থাকে, দলকে ভালো একটি অবস্থানে নিয়ে যাওয়ার সুযোগ থাকে, র‌্যাঙ্কিংয়ে উপরের দিকে যাওয়ারও সুযোগ থাকে। এদিক দিয়ে চিন্তা করলে আমার মনে হয় এটা খুব ভালো একটি সুযোগ।’

তবে শুধু টেস্টের জন্য অপেক্ষায় থেকে সময় কাটে না মুমিনুলের। এর মাঝেই নিজের ব্যাটিং নিয়ে কাজ করেন। অনুশীলনে নিজেকে শানিত করার চেষ্টা করেন।

২৭ বছর বয়সি এই ব্যাটসম্যান বলেন, ‘টেস্ট ক্রিকেটের জন্য সবসময় বসে থাকলে হয় না। যেসব জায়গায় উন্নতি দরকার সেখানে উন্নতি করতে আপনাকে অনুশীলন সবসময়ই চালিয়ে যেতে হবে। এ কারণেই আমি বাড়তি অনুশীলন করি। আমার কাছে মনে হয় টেস্ট ক্রিকেটে যদি আমি খুব ভালো গড় নিয়ে যাই, বা বিপিএলে ভালো অবস্থান নিয়ে যাই, যদি ভালো করতে পারি তাহলে ভালো একটা সুযোগ আছে।’

নিকট ভবিষ্যতে নিজেদের অভ্যস্ততার চেয়ে বেশি টেস্ট খেলতে হবে বাংলাদেশকে। সেজন্য শারীরিক, মানসিক দুটোরই প্রস্তুতি প্রয়োজন বলে মনে করেন মুমিনুল। টপঅর্ডার এই ব্যাটসম্যান বলেন, ‘এই জায়গায় মানসিকভাবে অনেক শক্ত হতে হয়। শারীরিকভাবেও সামর্থ্যবান হতে হয়। আশা করি আমার অমন কোনো সমস্যা হবে না। এটায় আমি অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছি। কয়েকদিন আগে ভারতে আমি তিন-চারটা চার দিনের ম্যাচ খেলেছি। খেলার মধ্যে থাকলে বিষয়টা সহজ হয়। অত কঠিন হয় না। জিনিসটা কঠিনভাবে নিলে কঠিন, সহজভাবে নিলে সহজ।’

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে যাওয়ার আগে আফগানদের বিরুদ্ধে টেস্টটা ভালো প্রস্তুতির অংশ হবে বাংলাদেশের জন্য। গতকাল মুমিনুল বলেছেন, ‘টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের আগে এই ম্যাচ খেলা একটা ভালো প্রস্তুতি। আমাদের সবার জন্যই ভালো সুযোগ। মনে হয় ভালো একটি খেলা হবে।’

ইত্তেফাক/কেআই

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন