ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ৬ কার্তিক ১৪২৬
২৯ °সে


আইপিএলেই ফিরলেন হেসন

আইপিএলেই ফিরলেন হেসন
ছবি: সংগৃহীত

একটু এদিক ওদিক হলে বাংলাদেশ বা ভারতের কোচ হয়ে যেতে পারতেন। সেটা হয়নি। ভারতের কোচ হওয়ার জন্য ছেড়ে দিয়েছিলেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের চাকরিও। ফলে সাময়িকভাবে ‘বেকার’ হয়ে পড়েছিলেন মাইক হেসন। সেই বেকারত্ব দূর হলো। ফিরলেন আবার আইপিএলেই।

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু নিউজিল্যান্ডের সাবেক কোচ মাইক হেসনকে ক্রিকেট অপারেশন্স পরিচালক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে। অন্যদিকে কলকাতা নাইট রাইডার্সের সাবেক সহকারী কোচ সাইমন ক্যাটিচকে প্রধান কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে ব্যাঙ্গালুরু।

একই সঙ্গে দলটি এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে তারা কোচ ও মেন্টর গ্যারি কার্স্টেন এবং বোলিং কোচ আশিষ নেহরার সঙ্গে আর কাজ চালাবে না। ব্যাঙ্গালুরু দলে কখনোই ক্রিকেট অপারেশন্স পরিচালক বলে কোনো পদ ছিলো না। তারা হেসনের জন্য এই পদটি তৈরি করেছে।

বলা হয়েছে হেসন তাদের ‘নীতি, কৌশল, বিভিন্ন আয়োজন, খেলোয়াড় বাছাই এবং পারফরম্যান্স ম্যানেজমেন্ট’ দেখাশোনা করবেন। গত দুই বছর আইপিএলে খুব খারাপ করার পর ব্যাঙ্গালুরু এই সিদ্ধান্ত নিল। গত দুই বছরে যথাক্রমে ষষ্ঠ ও শেষ দল হয়েছিল তারা। এবার হেসন সরাসরি কোচিংয়ের দায়িত্বে না থাকলেও ব্যাঙ্গালুরুতে তিনি কোচদের ও খেলোয়াড়দের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবেই কাজ করবেন বলে বলা হয়েছে।

খেলোয়াড় হিসেবে কখনোই শীর্ষ পর্যায়ে না খেলা মাইক হেসন কোচ হিসেবে সাফল্য পেয়েছিলেন নিউজিল্যান্ড জাতীয় দলের হয়ে। এই দলটিকে ২০১৫ বিশ্বকাপ ফাইনালে তুলেছিলেন তিনি। এরপর সেই দায়িত্ব ছেড়ে তিনি আইপিএলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের কোচ হন। সর্বশেষ ভারতীয় জাতীয় দলের কোচ হওয়ার জন্য সাক্ষাত্কার দিয়েছিলেন। সেখানে ছয় জনের সংক্ষিপ্ত তালিকায়ও ছিলেন। কিন্তু বর্তমান কোচ রবি শাস্ত্রীর কাছে সামান্য ব্যবধানে পিছিয়ে পড়েন তিনি। এরপর বাংলাদেশের সম্ভাব্য কোচ হিসেবেও তার নাম শোনা গিয়েছিলো। কিন্তু বাংলাদেশে দায়িত্বটা নেন রাসেল ডমিঙ্গো।

অন্যদিকে ক্যাটিচের আইপিলে বিপুল অভিজ্ঞতা আছে। গত আসর পর্যন্ত তিনি ছিলেন কলকাতার সহকারী কোচ। এছাড়া সম্প্রতি ক্যাটিচ ‘দ্য হান্ড্রেড’ ক্রিকেটের উদ্বোধনী আসরে ম্যানচেস্টারভিত্তিক দলের প্রধান কোচ হিসেবেও দায়িত্ব নিয়েছেন।

হেসন ও ক্যাটিচকে স্বাগত জানিয়ে ব্যাঙ্গালুরু এই বিবৃতিতে বলেছে, ‘আরসিবির (ব্যাঙ্গালুরু) উদ্দেশ্য হলো, সবচেয়ে বিশ্বস্ত, সম্মানীয় এবং সেরা পারফরম্যান্সের টি-টোয়েন্টি ফ্রাঞ্চাইজি গড়ে তোলা। সেই উদ্দেশ্যে আমরা দলের প্রত্যেকের একটা উন্নতি ও হাই পারফরম্যান্সের একটা সংস্কৃতি গড়ে তুলতে চাই। এই আকাঙ্ক্ষা পূরণের জন্য আমরা ঘোষণা করছি যে মাইক হেসন ও সাইমন ক্যাটিচ আমাদের সঙ্গে যোগ দিচ্ছেন। আমরা বিশ্বাস করি শক্তিশালী দল গঠনে মাইকের অসাধারণ অভিজ্ঞতা এবং সাইমনের শক্তিশালী ক্রিকেট অভিজ্ঞতা আমাদের একটা জয়ের সংস্কৃতি তৈরি করে দেবে।’

ইত্তেফাক/এসআর

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২২ অক্টোবর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন