পিকনিকের বাসে আসছে ইয়াবার চালান

প্রবেশমুখ যাত্রাবাড়ী-ডেমরা সড়ক
পিকনিকের বাসে আসছে ইয়াবার চালান
পিকনিকের বাসে আসছে ইয়াবার চালান। ছবিঃ প্রতীকী

কক্সবাজার থেকে প্রতিদিন ঢাকায় আসছে ইয়াবার কয়েক'শ চালান। বড় চালানের জন্য ইয়াবা কারবারিরা বেশি ব্যবহার করছে পিকনিকের বাস। আর রাজধানীতে ইয়াবার চালানের মূল প্রবেশমুখ যাত্রাবাড়ী-ডেমরা সড়ক। এ সড়কেই চালান হস্তান্তরের কাজ হয়ে থাকে। ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে সম্প্রতি সময় ইয়াবার চালানসহ গ্রেফতারকৃতরা এমনই তথ্য জানিয়েছে।

সর্বশেষ মঙ্গলবার মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (লালবাগ বিভাগের জোনাল টিম) ২৭ হাজার পিস ইয়াবাসহ চার মাদককারবারিকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতরা হলো—বাসচালক নুরুল আফছার, মো. ইকবাল হোসেন , সোনা মিয়া ও মানিক কুমার রায়। গ্রেফতারের সময় জব্দ করা হয় ইয়াবা পরিবহনে ব্যবহূত একটি বাস। গ্রেফতারকৃতদের গতকাল রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করছে গোয়েন্দা পুলিশ।

অভিযান পরিচালনাকারী ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার শামসুল আরেফীন বলেন, গ্রেফতারকৃত বাসের চালক মো. নুরুল আফছার জানিয়েছেন, তিনি বেশ কিছুদিন ধরে ইয়াবার চালান আনার কাজে জড়িত। তিনি যে বাসের চালক ঐ পরিবহনের বাস নিয়ে বিভিন্ন সময় পিকনিক উপলক্ষ্যে লোকজনকে নিয়ে কক্সবাজারে যাতায়াত করেন। ফেরার পথে তিনি কক্সবাজার থেকে ইয়াবার চালান নিয়ে ঢাকায় আসেন। ঢাকা আসার পর ইয়াবার চালান তার অপর সহযোগীদের কাছে পৌঁছে দেন। নুরুল আফছার জানিয়েছেন, তার মতো অনেক চালকই পিকনিকের সুযোগকে কাজে লাগাচ্ছেন।

আরো পড়ুনঃ এনআইডি জালিয়াতিতে সম্পৃক্ত শক্তিশালী চক্র

শামসুল আরেফীন আরো বলেন, পিকনিকের উদ্দেশ্যে যারা বাসটি ভাড়া করেছিল তারা সবাই নারায়ণগঞ্জে নেমে যায়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজধানীর শনির আখড়া (ডেমরা-যাত্রাবাড়ী রোডে) বাসটি আটক করে তল্লাশি চালিয়ে চালকের আসনের নিচে বিশেষ কৌশলে তৈরি করা বক্সে রাখা ২৭ হাজার ইয়াবা জব্দ করা হয়। পরে চালকের দেওয়া তথ্য মতে অন্যদের গ্রেফতার করা হয়। তিনি আরো বলেন, এর আগে ২ হাজার ৫০০ ইয়াবাসহ তিন কারবারিকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। তারাও প্রায় একই তথ্য জানিয়েছিল।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগের উপ-পুলিশ রাজীব আল মাসুদ বলেন, গ্রেফতারকৃতদের অপর সহযোগীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। এর আগে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের গুলশান বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মো. গোলাম সাকলায়েন গত ১৭ সেপ্টেম্বর যাত্রাবাড়ী থেকে ৫০ হাজার পিস ইয়াবাসহ দুই কারবারিকে গ্রেফতার করেন। জব্দ করা হয় ইয়াবা পরিবহনে ব্যবহূত একটি কাভার্ড ভ্যান। মো. গোলাম সাকলায়েন বলেন, গ্রেফতারকৃতরা কক্সবাজারের রিং রোড এলাকার একজন মাদক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ঐ ইয়াবা ক্রয় করে ঢাকায় নিয়ে আসছিলেন। এ ছাড়া ১৪ সেপ্টেম্বর যাত্রাবাড়ী থানা পুলিশ প্রায় ৬ হাজার পিস ইয়াবাসহ দুই কারবারিকে গ্রেফতার করে।

যাত্রাবাড়ী থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম বলেন, যাত্রাবাড়ী থানার কুতুবখালী এলাকার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। অপর দিকে এক প্রশ্নের জবাবে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ঢাকা মেট্রো উত্তরের সহকারী পরিচালক মেহেদী হাসান বলেন, সম্প্রতি ঢাকায় ইয়াবার সরবরাহ বেড়েছে এমন তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। তবে আমাদের টিম ইয়াবা কারবারিদের গ্রেফতারে অভিযান করছে। তবে তিনি বলেন, জনবল সংকটের কারণে ইচ্ছা থাকলেও আমরা অনেক সময় অভিযান চালাতে পারছিলাম না।

ইত্তেফাক/এমএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত