ইনানী সৈকতে যত্রতত্র ফেলা হচ্ছে ডাবের খোসা!

ইনানী সৈকতে যত্রতত্র ফেলা হচ্ছে ডাবের খোসা!
উখিয়া (কক্সবাজার) :মেরিন ড্রাইভ থেকে ইনানী বিচে নামতেই আবর্জনার স্তূপ। ছবি: ইত্তেফাক

উখিয়ার ইনানী সমুদ্র সৈকতের যত্রতত্র ছড়িয়ে আছে ডাবের খোসাসহ আবর্জনার স্তূপ। এতে নষ্ট হচ্ছে পর্যটন এলাকার পরিবেশ। কুমিল্লা থেকে আসা পর্যটক ব্যাংকার অলিউল ইসলাম বলেন, ইনানীর সৌন্দর্যের কথা বিভিন্ন মিডিয়া ছাড়াও মানুষের মুখে শুনে ঘুরতে এসেছি। কিন্তু এখানে এসে দেখলাম বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে থাকা ডাবের খোসাসহ আবর্জনার কারণে সৈকতের পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে।

স্থানীয় বাসিন্দা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, পর্যটন এলাকার সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিচ কর্মী নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। দায়িত্বপালনে তাদের অবহেলার কারণে এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।

বিচ কর্মী নাজিম উদ্দিন, বেলাল উদ্দিন ও আবুল মনজুর বলেন, স্থানীয় ডাব বিক্রেতারা তাদের বিক্রীত ডাবের খোসাগুলো বিচে নামার অংশে বিস্তৃর্ণ এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রেখেছে। এ নিয়ে তারা প্রতিবাদ করলেও কোনো কাজ হয়নি।

ইনানী পর্যটন স্পটের ইজারাদার মোজাম্মেল হক লিটন জানান, বিচ ও মেরিন ড্রাইভের সংযোগ সড়ক নির্মাণকালে বিচে নামার অংশবিশেষে বিশালাকার খাদের সৃষ্টি হয়েছিল। খাদটি ভরাট করার জন্য অন্যান্য বর্জ্য ছাড়া শুধু ডাবের খোসাগুলো রাখার জন্য বলা হলেও তা কিছুদিন হলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তবে ডাব বিক্রেতা, পর্যটকসহ ক্রেতাসাধারণ ডাবের খোসা ঐ স্থানে ফেলা অব্যাহত রাখায় এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। তিনি বলেন, অবিলম্বে ডাবের খোসাগুলো অন্যত্র স্থানান্তর করা হবে।

ইনানী ট্যুরিস্ট পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মিজান জানান, যেখানে-সেখানে ময়লা-আবর্জনা ফেলার মতো পরিবেশ বিধ্বংসী কর্মকাণ্ড বিভিন্ন স্পটে দেখা যাচ্ছে। এ ব্যাপারে স্থানীয়দের সহযোগিতা নিয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও উপজেলা বিচ ম্যানেজমেন্ট কমিটির সভাপতি নিজাম উদ্দিন আহমেদ বলেন, পর্যটন স্পটে কোনো প্রকার বর্জ্য না ফেলার ব্যাপারে স্থানীয় ইজারাদারকে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x