ফেনী মুহুরী প্রজেক্ট

ফেনী মুহুরী প্রজেক্ট
ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশে স্থাপিত বায়ুবিদ্যুেকন্দ্রগুলোর মধ্যে ফেনীর সোনাগাজীর চরে মুহুরি নদীর মোহনায় স্থাপিত উইন্ডমিল অন্যতম। ২০০৫ সালে প্রায় ৬ একর জমির ওপর এই প্রকল্প স্থাপিত হয়। অন্যদিকে মুহুরি নদীর মোহনীয় রূপ, নদীর ওপর স্থাপিত বাঁধ সব মিলিয়ে ফেনী-নোয়াখালী অঞ্চলের মানুষের জন্য বিনোদন এবং প্রয়োজনের ঝুলি পূরণ করছে এই ‘মুহুরী প্রজেক্ট’ তথা মুহুরী সেচ প্রকল্প।

ব্যস্ততম সড়ক থেকে দূরে সারি সারি গাছে ঘেরা রাজপথে কয়েক কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে প্রকৃতির এই অপার সৌন্দর্যেকে ছোঁয়া যায়। এখানে আসার পথে চোখে পড়বে বিস্তীর্ণ চর, সরু রাস্তা আর রাস্তার দুধারের গাছগুলি।

বায়ুশক্তিকে কাজে লাগিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য এখানে স্থাপিত হয়েছে বায়ু বিদ্যুতের চারটি টারবাইন। বিদ্যুৎ, খনিজ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের তথ্যমতে, ২০১৪ সালে এই প্রকল্প থেকে উৎপাদিত বিদ্যুতের পরিমাণ ছিল ২ লাখ ২৪৩৯ ইউনিট। এবং গড় উৎপাদন ছিল ১৬৮৩০ ইউনিট। বর্তমানে চারটি টারবাইনে ২২৫ কিলোওয়াট করে প্রায় ৯০০ কিলোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হচ্ছে।

মুহুরী প্রজেক্ট কেবল বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রই নয়। প্রতিদিন অসংখ্য মানুষ এখানে আসেন মানসিক শান্তি লাভের জন্য। ঝাউয়ের ফাঁকা বনে মানুষ উন্মুক্ত বাতাস গ্রহণ করতে পারে। মানুষের আনাগোনার দরুন এখানে বসে বাহারি খাবারের দোকান। আর নদীর সঙ্গে এখানকার মানুষের রয়েছে গভীর মিতালি। মুহুরী নদীতে জাল ফেলে প্রায়ই মাছ ধরে বিক্রি করে জেলেরা। দর্শনার্থীরা সেসব তাজা মাছ কিনে নেয়। এদিকে নদীর বুকের নৌকা আর ছোট ছোট ট্রলার রয়েছে পর্যটকদের নদীপথের অপার সৌন্দর্য দেখানোর জন্য। সব মিলিয়ে ফেনীর মুহুরী প্রজেক্ট একইসঙ্গে বায়ুবিদ্যুৎ উৎপাদন ও পর্যটনের লীলাভূমি।

ইত্তেফাক/কেকে

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x