স্ত্রীর সঙ্গে ৩ দিন, প্রেমিকার সঙ্গে ৩ দিন থাকার সমাধান দিলেন পুলিশ!

স্ত্রীর সঙ্গে ৩ দিন, প্রেমিকার সঙ্গে ৩ দিন থাকার সমাধান দিলেন পুলিশ!
ছবি: সংগৃহীত

ঘরে স্ত্রী থাকা সত্ত্বেও অন্য এক তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন এক ব্যক্তি। এনিয়ে মহা ঝামেলায় পড়েন। তবে পুলিশ তাকে আজব এক সমাধান দেন! পুলিশের পরামর্শ দেন, স্ত্রীর সঙ্গে ৩ দিন, প্রেমিকার সঙ্গে তিনদিন এবং অন্য একদিন বিশ্রামে থাকার।

ভারতের ঝাড়খণ্ডের পুলিশ এই অভিনব সমাধান দেন রাঁচির কোকার তিরিল রোডের রাজেশ মাহাতো নামে এক ব্যক্তিতে। রাজেশও তা মেনে নেন। যার জন্য কিছুদিনের জন্য ঝামেলা থামলেও শেষ সমাধান হয়নি।

শেষমেষ রাজেশের প্রেমিকা তার বিরুদ্ধে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ তুলে এফআইআর দায়ের করেছেন। এতে রাজেশের নামে দায়ের হয়েছে গ্রেফতারি পরোয়ানা।

ঘটনার বিস্তারিত সম্পর্কে জানা যায়, বিবাহিত এবং সন্তানের বাবা হওয়া সত্ত্বেও এক তরুণীর প্রেমে পড়েন রাজেশ। এর কয়েকদিন পরই প্রেমিকাকে নিয়ে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যান তিনি। এদিকে তার স্ত্রী দ্বারস্থ হন পুলিশের। থানায় গিয়ে স্বামীর নামে অভিযোগ ঠুকে দেন। ওদিকে তরুণীর পরিবারও পাল্টা রাজেশের বিরুদ্ধে অপহরণের অভিযোগ দায়ের করে। এরপর ঝাড়খণ্ড পুলিশ খোঁজ শুরু করে রাজেশের। হদিশ মেলে রাজেশের। তবে প্রেমিকাকে ইতিমধ্যেই বিয়ে করেন রাজেশ।

এরপর ফের থানায় জড়ো হয় দুইপক্ষ। রাজেশকে মাঝখানে রেখে শুরু হয় তুমুল জগড়া। বুঝিয়েও দু’পক্ষকে শান্ত করতে ব্যর্থ হয় পুলিশ। অগত্যা বের করা হয় এই অভিনব সমাধান। ঝাড়খণ্ড পুলিশ রাজেশকে পরামর্শ দেয়, সপ্তাহের প্রথম তিন দিন স্ত্রীর সঙ্গে কাটাতে, আর বাকি তিন দিন প্রেমিকার সঙ্গে কাটাতে। মাঝের এক দিন সে ‘ছুটি’ নিতে পারে। প্রথমে দু’পক্ষ এই প্রস্তাব মেনেও নেয়। তারা ‘অফিসিয়ালি’ ‘ডিল’ সই করে। দু’পক্ষকেই এই সংক্রান্ত নথির ‘কপি’ও দিয়ে দেওয়া হয়।

তবে দিন কয়েক পরই রাজেশের প্রেমিকা সুর পাল্টায়। ফের তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ঠুকে দেয়। জানা যায়, রাজেশ পলাতক ছিল।

ইত্তেফাক/এসআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x