বোতলে মূত্রত্যাগ করতেন অ্যামাজন ট্রাক চালকরা!

বোতলে মূত্রত্যাগ করতেন অ্যামাজন ট্রাক চালকরা!
ছবি: সংগৃহীত।

অতিরিক্ত কাজের চাপ এবং বাথরুমের অভাবে অনেকসময় গাড়িতে বসেই পানির বোতলে মূত্রত্যাগ করতে হতো অ্যামাজন ট্রাক চালকদের। সম্প্রতি এ তথ্য স্বীকার করে মার্কিন কংগ্রেসম্যান মার্ক পোক্যানের কাছে ক্ষমা চেয়েছে অ্যামাজন কর্তৃপক্ষ।

ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসির বরাতে জানা যায়, আগে একবার এই বিষয়টি অস্বীকার করলেও এবার মার্কিন প্রতিনিধির কাছে ক্ষমা চেয়ে এই স্বীকারোক্তি দিলো অ্যামাজন। সংস্থাটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, ভুলবশত প্রথমে তাঁরা ঘটনাটি অস্বীকার করেছিলেন।

মার্কিন কংগ্রেসম্যান মার্ক পোক্যান এক টুইট বার্তায় বলেন, ‘কর্মীদের যদি ১৫ ঘণ্টা কাজ করেও বোতলে প্রস্রাব করতে হয়, তাহলে সেটা উন্নত ও কর্মবান্ধব কাজের জায়গা নয়।’

অ্যামাজনের এই স্বীকারোক্তি এসেছে মার্কিন ডেমোক্রেট দলের সমালোচনার পর। দলটি এক টুইটে বলেছিল, ঘণ্টায় ১৫ ডলার বেতন দিলেই আপনার কাজের জায়গা আদর্শ হয়ে ওঠে না। বিশেষ করে যখন আপনি শ্রমিক ইউনিয়ন ঠেকাবেন আর আপনার ডেলিভারি চালক টয়লেট না পেয়ে বোতলে মূত্রত্যাগ করতে বাধ্য হয়।

বিভিন্ন মহলে দাবি করা হয়, আন্তর্জাতিক অনলাইন বিপণন সংস্থা অ্যামাজনের কর্মীদের কাজের চাপ এতটাই বেশি যে তারা কাজের ফাঁকে একটুও বিশ্রাম নিতে পারেন না! শুধু তাই নয়, বাথরুমে পর্যন্ত যেতে পারেন না। সেজন্য তাদের বোতলে প্রস্রাব করতে হয়। এমনই বেশ কয়েকটি টুইট—রিটুইট ও কর্মচারীদের অভিযোগ ঘিরে সরগরম হয়ে ওঠে নেটদুনিয়া। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অ্যালবামা প্রদেশের এই ঘটনার অভিযোগের ভিত্তিতেই অভিযুক্ত করা হয় অ্যামাজনকে।

ইত্তেফাক/এএইচপি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x