৪৫ হাজার বছরের পুরনো মানব দেহাবশেষ

৪৫ হাজার বছরের পুরনো মানব দেহাবশেষ
ছবি: সংগৃহীত।

৪৫ হাজার বছর আগের মানুষের দেহাবশেষের সন্ধান মিলল বুলগেরিয়ার এক গুহা থেকে। সেই দেহাবশেষের ডিএনএ থেকে হোমো স্যাপিয়েন্স প্রজাতি সম্পর্কে মিলল চমকপ্রদ তথ্য।

সংবাদ মাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের বরাতে জানা যায়, বুধবার বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, তিন দেহাবশেষই পুরুষদের। তাদের হাড় ও দাঁতের অংশ থেকে পাওয়া ডিএনএ পরীক্ষা করে দেখেছেন বিজ্ঞানীরা। সেই সঙ্গে সেখানে মিলেছে ৩৫ হাজার বছর আগেকার এক মহিলার দেহাবশেষও। এই সব ক’টি দেহাবশেষই পাওয়া গিয়েছে বুলগেরিয়ার বাচো কিরো গুহা থেকে।

ডিএনএ গুলি পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে, তার মধ্যে ৩ থেকে ৩.৮ শতাংশ নিয়ান্ডারথাল ডিএনএ। লন্ডনের গবেষক মাতেজা হাজডিনজাক এবিষয়ে বলতে গিয়ে জানিয়েছেন, নিয়ান্ডারথালের সঙ্গে যে হোমো স্যাপিয়েন্সদের মিশ্রণ হয়েছিল, তার উৎকৃষ্ট উদাহরণ ওই দেহাবশেষগুলির ডিএনএ।

আজ থেকে ৩ লক্ষ বছর আগে মানুষের সর্বাধুনিক প্রজন্ম হোমো স্যাপিয়েন্সের আবির্ভাব ঘটেছিল আফ্রিকায়। পরে তারা পৃথিবীর অন্যত্র ছড়িয়ে পড়ে। শুধু তাই নয়, সেই সময় পৃথিবীতে হোমো স্যাপিয়েন্স ছাড়াও নিয়ান্ডারথাল মানুষরাও ছিল। তারা বিলুপ্ত হয় ৪০ হাজার বছর আগে। তবে তার আগে তাদের সঙ্গে হোমো স্যাপিয়েন্সের মিশ্রণ ঘটেছিল। এই নতুন দেহাবশেষ থেকে সেবিষয়ে স্পষ্ট ধারণা করা গেল।

ইত্তেফাক/এএইচপি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x