ঢাকা বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৬ ফাল্গুন ১৪২৬
১৯ °সে

সিলেটে দেশের প্রথম ভূগর্ভস্থ বিদ্যুৎ লাইনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন

সিলেটে দেশের প্রথম ভূগর্ভস্থ বিদ্যুৎ লাইনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন
ভূগর্ভস্থ বিদ্যুৎ লাইনের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সরবরাহের উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। ছবি-ইত্তেফাক

সিলেটে দেশের প্রথম ভূগর্ভস্থ বিদ্যুৎ লাইন আজ শুক্রবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন হযরত শাহজালাল (রহ)-এর মাজারের প্রধান গেটে আনুষ্ঠানিকভাবে ভূগর্ভস্থ বিদ্যুৎ লাইনের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সরবরাহের উদ্বোধন করেন।

চলতি মাসের ৫ তারিখ থেকে ভূগর্ভস্থ বিদ্যুৎ লাইনের মাধ্যমে পরীক্ষামূলকভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হলেও আজ তা আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হলো। এর ফলে হযরত শাহজালাল (র) দরগাহ ও আশপাশ এলাকার প্রায় সাড়ে ৪শ গ্রাহক এর ভোগ করবেন। বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে ও বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (বিউবো)-এর সহযোগিতায় প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হচ্ছে।

‘বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা উন্নয়ন প্রকল্প, সিলেট বিভাগ’-সূত্রে জানা যায়, নগরীর আম্বরখানা ইলেকট্রিক সাপ্লাই থেকে হযরত শাহজালাল (র) দরগাহ শরীফ পর্যন্ত এরই মধ্যে প্রায় এক কিলোমিটার ভূগর্ভস্থ বিদ্যুৎ লাইনের নির্মাণ কাজ সফলভাবে সমাপ্ত হয়েছে। এর মধ্যে ওলিকুল শিরোমণি হযরত শাহজালাল (র) মাজার এলাকায় প্রায় ৩শ মিটার লাইন রয়েছে। এই প্রকল্পের আওতায় আম্বরখানা উপকেন্দ্র থেকে চৌহাট্টা হয়ে বন্দরবাজার পর্যন্ত দুটি এবং শেখঘাট উপকেন্দ্র হতে সার্কিট হাউস পর্যন্ত আরো একটি ১১ কেভি ফিডারকে সম্পূর্ণভাবে ভূগর্ভস্থ লাইনে রূপান্তরের কাজ চলমান রয়েছে। শিগরিগই কাজগুলো সমাপ্ত হবে বলে বিউবো সূত্র জানায়।

‘বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা উন্নয়ন প্রকল্প, সিলেট বিভাগ’-এর প্রকল্প পরিচালক কেএম নাজিম উদ্দিন ইত্তেফাককে জানান, ২০১৮ সালের মে মাসে এ প্রকল্পের কাজ শুরু হয়। ২০২১ সালের জুনে প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হবে। আধ্যাত্মিক নগরী খ্যাত সিলেট হযরত শাহজালাল (র) দরগাহ শরীফে প্রথমে ভূগর্ভস্থ বিদ্যুৎ লাইন সরবরাহ করা হয়েছে। তিনি জানান, এ প্রকল্পের আওতায় ৫৫কোটি টাকা ব্যয়ে সিলেট নগরে ৭ কিলোমিটার ভূগর্ভস্থ বিদ্যুৎ লাইন নির্মাণ করা হবে।

প্রকল্পের অগ্রগতি সম্পর্কে প্রকল্প পরিচালক আরো বলেন, আম্বরখানা থেকে সার্কিট হাউস পর্যন্ত আন্ডারগ্রাউন্ড বিদ্যুৎ লাইন স্থাপন হয়ে গেছে। আগামী মাসে সার্কিট হাউজ পর্যন্ত আন্ডারগ্রাউন্ড ক্যাবল লাইনের কাজ পুরোপুরি শেষ করার পর চৌহাট্টা থেকে ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পর্যন্ত লাইন স্থাপন করা হবে। তিনি জানান, দরগাহ এলাকায় লাইন নির্মাণের পর তা বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-১ এর নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। তিনি জানান, চালুর পর থেকে এ লাইনে এখন পর্যন্ত কোন ত্রুটি পরিলক্ষিত হয়নি।

সিলেটে ভূগর্ভস্থ বিদ্যুৎ লাইনের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সরবরাহ প্রকল্প বাস্তবায়নকারী ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ‘দি ইস্ট ওয়ে ইলেকট্রিক কোম্পানি এবং জে এন্ড সি ইমপেক্স লিমিটেড জেভি’ সিলেটের পাশাপাশি গাজীপুরের টঙ্গী ও ঢাকার কয়েকটি এলাকায় ভূগর্ভস্থ বিদ্যুৎ লাইন নির্মাণ করছে। তবে, সিলেটে নির্মিত লাইন থেকে প্রথম বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হচ্ছে।

ইত্তেফাক/আরকেজি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন