ঢাকা মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬
২৭ °সে


ফেনী-২: ভোট যুদ্ধ হবে নিজাম হাজারী ও জয়নাল আবেদীনের

ফেনী-২: ভোট যুদ্ধ হবে নিজাম হাজারী ও জয়নাল আবেদীনের
ফেনী-২ আসনের দুই প্রার্থী। ছবিঃ ইত্তেফাক।

বারটি ইউনিয়ন ও একটি প্রথম শ্রেণির পৌরসভা নিয়ে ফেনী সদর-২ আসন গঠিত। আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এ আসনে পুরুষ ও মহিলাসহ মোট ৩,৪৮,১৬২ জন ভোটার অংশগ্রহণ করবে।

ফেনী-২ আসনের বিভিন্ন রাজনৈতিক দল থেকে মোট ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এমপি নিজাম উদ্দিন হাজারী নৌকা প্রতীক, বিএনপি প্রার্থী অধ্যাপক ভি.পি জয়নাল আবেদীন ধানের শীষ প্রতীক, বাংলাদেশ বিপ্লবী ওয়ার্কাস পার্টি জসিম উদ্দিন কোদাল প্রতীক, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নুরুল করিম বেলালী হাতপাখা প্রতীক ও জাকের পার্টির মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম গোলাপ ফুল প্রতীকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন।

ধারণা করা হচ্ছে, মর্যাদাপূর্ণ এই আসনে হেভিওয়েট প্রার্থী এমপি নিজাম উদ্দিন হাজারী ও অধ্যাপক ভি.পি জয়নালের মধ্যে ৩০ ডিসেম্বর ভোট যুদ্ধে লড়াই হবে সমানে সমান।

এমপি নিজাম উদ্দিন হাজারী নৌকা প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পরই দলীয় নেতা কর্মীদের নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে নেমে পড়েছেন। প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত প্রার্থী নিজেও নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে সদর উপজেলার বারটি ইউনিয়নে প্রত্যন্ত অঞ্চলে চষে বেড়াচ্ছেন। মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে নৌকা মার্কায় ভোট চাচ্ছেন।

প্রার্থী বিগত ৫টি বৎসর ফেনীর উন্নয়নে তার নিরলস কর্মকাণ্ডের কথা ভোটারদের কাছে তুলে ধরছেন। তিনি আবার নির্বাচিত হলে ফেনী জেলাকে বাংলাদেশের একটি মডেল জেলা এবং ফেনী শহর ও গ্রামাঞ্চলগুলোকে তিলোত্তমা নগরীতে পরিণত করবেন। নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে জননেত্রী শেখ হাছিনার উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখার জন্য সকল ভোটারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছেন।

অপরদিকে বিএনপির হেভি ওয়েট প্রার্থী অধ্যাপক ভি.পি জয়নাল প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পর তার নেতা কর্মীদেরকে নিয়ে ফেনী শহরের কেন্দ্রস্থলে তাকিয়া রোড়ে সূফী সাধক পাগলা মিয়ার মাজার জিয়ারত করেন। তারপর থেকে তাকে এবং তার দলীয় নেতাকর্মীদেরকে মাঠে দেখা যাচ্ছে না। এছাড়াও শহরে গ্রাম-গঞ্জের বাজার এলাকায় তার দলের কোন পোস্টার ও গণসংযোগ করতে দেখা যাচ্ছে না। অপরদিকে বাকি তিনটি রাজনৈতিক দলের প্রার্থীদের কোনো প্রকার প্রচার-প্রচারণা, গণ সংযোগ করতে ও শহরে কোন পোস্টার দেখা যাচ্ছে না।

আরও পড়ুনঃ ফেনী-১: লড়াই হবে মহাজোট-ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থীর

আওয়ামী লীগের প্রার্থী এমপি নিজাম উদ্দিন হাজারী জানান, 'আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট চাওয়ার অধিকার সকলেরই আছে। বিএনপিসহ বিভিন্ন দলের পোস্টার, ব্যানার এবং প্রচার-প্রচারণা ও গণ সংযোগ করতে তার এবং তার দলের কোন আপত্তি থাকার প্রশ্নই উঠে না। যে কোন সমস্যা প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থীরা তাকে অবহিত করলে তিনি অবশ্যই প্রার্থীদের সর্বত্র সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেবেন।'

নির্বাচনের মাঠে প্রচার-প্রচারণা দুজনের সমান না হলেও এলাকাবাসী ধারণা করছে দুই প্রার্থীর মধ্যে লড়াই হবে হাড্ডাহাড্ডি।

ইত্তেফাক/নূহু

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৬ জুলাই, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন