নোয়াখালীতে চিকিত্সা প্রদানে চিকিত্সকদের অনীহা!

নোয়াখালীতে চিকিত্সা প্রদানে চিকিত্সকদের অনীহা!
করোনা ভাইরাস চিকিতসায় পিপিই সংকট। ফাইল ছবি

জেলায় করোনা ভাইরাস আতঙ্ক থেকে নিজেদের সুরক্ষায় জেলার বেসরকারি ক্লিনিকের রোগীদের স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে অনীহা প্রকাশ করছে চিকিত্সক ও নার্সরা। যারা জ্বর, সর্দি, কাশি ও অন্যান্য রোগের সমস্যায় ভুগছেন এমন রোগীকেও চিকিত্সা দূরের কথা রোগীকে স্পর্শ করতেও অনীহা প্রকাশ করছেন অনেক চিকিত্সক ও নার্স।

অনেক চিকিত্সক জানিয়েছেন, তাদের নিরাপত্তাজনিত সুরক্ষার বিষয়টি নিশ্চিত না হলে রোগীদের চিকিত্সা প্রদান করবেন না। এ পরিস্থিতিতে জেলা শহর মাইজদীসহ বিভিন্ন স্থানে অনেক চিকিত্সক তাদের ব্যক্তিগত চেম্বারও বন্ধ করে দিয়ে নিজেরা হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। এতে করে বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে চিকিত্সাসেবা মারাত্মকভাবে বিপর্যয়ের মধ্যে পড়েছে।

সোমবার সদর উপজেলা প্রাইভেট ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক বোরহান উদ্দিন মিঠু বলেন, বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে পর্যাপ্ত পরিমাণে চিকিত্সক, নার্স ও স্টাফদের জন্য পারসোনাল প্রটেকশন ইকুইপমেন্ট (পিপিই) সার্জিক্যাল মাস্ক, গাউন, হ্যান্ড গ্লাভস, মাস্ক, কেপ, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও অন্যান্য সামগ্রী মজুত না থাকায় তারা নিজেদের নিরাপত্তার কারণে চিকিত্সাসেবা দিতে অপারগতা প্রকাশ করছেন।

এ সংকট উত্তরণের জন্য মানবতার স্বার্থে সংশ্লিষ্ট সবাইকে সুরক্ষায় সব ধরনের সরঞ্জাম সামগ্রী সরকার কর্তৃক সরবরাহ করার জন্য অনুরোধ জানাই এবং প্রয়োজনে তারা উক্ত সামগ্রী ক্রয় করে নেবে বলে জানান তিনি। এ ব্যাপারে সংগঠনের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসককে অবহিত করেছেন। এ পরিস্থিতির কথা স্বীকার করে জেলা প্রশাসক তন্ময় দাস জানান, জেলার সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে পিপিই ব্যাপক সংকট রয়েছে। তা দ্রুত নিরসনের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছেন তিনি।

ইত্তেফাক/এসআই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত