ঢাকা শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
২৮ °সে

করোনা প্রাদুর্ভাবে মানুষের পাশে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রিজ্জাকুল ইসলাম

করোনা প্রাদুর্ভাবে মানুষের পাশে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রিজ্জাকুল ইসলাম
করোনা প্রাদুর্ভাবে মানুষের পাশে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রিজ্জাকুল ইসলাম।ছবি: ইত্তেফাক

দেশব্যাপী করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকেই বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়ে মাঠে নেমেছেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রিজ্জাকুল ইসলাম রাজু। গত ১৫ মার্চ থেকে শুরু করে আজ অবধি চলমান রয়েছে তার এ কার্যক্রম। জনসচেতনতামূলক লিফলেট ও বিতরণ মাইকিং এর মাধ্যমে সচেতনতা বৃদ্ধি করেন তিনি।

এছাড়াও উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে এবং পৌর এলাকায় ৫ হাজার সাবান,৫ হাজার মাস্ক, ১ হাজার ২০০ হেক্সিসল, ৩০ কেজি ব্লিচিং পাউডারসহ ১৩টি স্প্রে মেশিন সরবরাহ করেন।

করোনা পরিস্থিতি দিন দিন অবনতির দিকে গেলে রিজ্জাকুল ইসলাম রাজু নিজেই একটি সেচ্ছাসেবী টিম গঠন করেন এবং প্রত্যেক সদস্যদের টিশার্টসহ তাদের নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণ সরবরাহ করেন। পরবর্তীতে এই সেচ্ছাসেবী টিমের মাধ্যমে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে নানাভাবে কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছেন তিনি।

দেশব্যাপী করোনার এই দুর্যোগে বহু মানুষ যখন কর্মহীন হয়ে ঘরে বসে আছেন। অর্থাভাবে যখন অনেক নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবার যখন মানবেতর জীবনযাপন করছে , ঠিক সেই মুহূর্তে নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত অসহায় মানুষ গুলোর পাশে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে উজ্জ্বল এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করে দেখাচ্ছেন বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান রিজ্জাকুল ইসলাম রাজু।

উপজেলার ১২ টি ইউনিয়নে এবং পৌর এলাকায় ধারাবাহিকভাবে শতাধিক কর্মহীন পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী ও নগদ অর্থ সহায়তা করে আসছেন তিনি।

করোনা মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই তিনি ত্রাণ সহায়তায় সাড়া জাগিয়েছেন শিবগঞ্জ উপজেলা ব্যাপী। ভাইস চেয়ারম্যান রিজ্জাকুল ইসলাম রাজু এক বছরের সম্মানী বেতন ও নিজের জমানো কিছু টাকা জরুরি ত্রাণ তহবিলে তুলে দিয়ে উপজেলা জুড়ে লকডাউন থাকা রোজগার বন্ধ হওয়া বিপাকে পড়া অনেক দরিদ্র পরিবারকে সহযোগিতা করছেন।

আরো পড়ুন : রাত সাড়ে দশটায় তিন ‘ম’ কে দিয়ে শেষ হচ্ছে তামিমের ফেসবুক আড্ডা

উপজেলার আর্থিকভাবে পিছিয়ে থাকা মানুষদের পাশে দাঁড়িয়ে খাদ্যসামগ্রী ও নগদ অর্থ তুলে দিয়ে কর্মহীন প্রান্তিক মানুষের পাশে ধাপে ধাপে সহযোগিতা করে যাচ্ছেন তিনি। মহান 'মে' দিবস উপলক্ষে শতাধিক কর্মহীন পরিবারকে নগদ অর্থ ও খাদ্যসামগ্রী প্রদান করেন।

শিবগঞ্জ উপজেলা বিভিন্ন এলাকা ঘুরে জানা যায়, উপজেলাজুড়ে নিজ কর্মগুণে অনেক আগেই বেশ সুনাম কুড়িয়ে ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান রাজু। সদা হাস্যোজ্জ্বল স্বভাবের এই মানুষটি ভাইস চেয়ারম্যান ভোটে নির্বাচিত হওয়ার পর নিজের দায়িত্বই তিনি নিজের কর্তব্য মনে করে পালন করে ইতিমধ্যে প্রশংসিত হয়েছেন।

যে কারণে তিনি বগুড়া ভাইস চেয়ারম্যান এসোসিয়েশন নির্বাচনে সাংগঠনিক সম্পাদক হয়েছেন। রাজনৈতিক, অরাজনৈতিক ব্যক্তি থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষের কাছেও রয়েছে তার যথেষ্ট কদর। কোনো সমস্যা নিয়ে কেউ যদি এই তরুণ নেতার কাছে গিয়েছেন সেটি তিনি গুরুত্ব দিয়ে সমাধান করেছেন। এমন অনেক রেকর্ড তার রয়েছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

এবিষয়ে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রাজুর সাথে কথা বললে তিনি জানান, আমি দীর্ঘদিন ধরেই এই ধরনের কাজ করে থাকি। উপজেলার মানুষের পাশে থাকার স্বপ্ন আমার ছোটবেলা থেকেই। উপজেলা নির্বাচনে জনগণের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে আমি দুর্যোগ মুহূর্তে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করছি। এজন্যই করোনা মোকাবিলায় সরকারের পাশাপাশি আমার ব্যক্তিগত অর্থ কাজে লাগিয়ে সমাজের পাশে থাকতেই আমার এই ক্ষুদ্র প্রয়াস।

এজন্যই তিনি নিজের এক বছরের বেতন ও জমানো অর্থ সেসব মানুষের সাহায্যার্থে বিলিয়ে দিলেন। তিনি উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে খাদ্যসামগ্রী, নগদ অর্থ ও করোনা ভাইরাস মোকাবেলা উপকরণ বিতরণ করে যাচ্ছেন। ভবিষ্যতে তার এই ধারাবাহিকতা চলমান থাকবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

ইত্তেফাক/এএএম

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
০৬ জুন, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন