বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২২ আষাঢ় ১৪২৭
২৮ °সে

গজারিয়ায় ছাত্রলীগের তিন নেতাসহ ৮জনকে কুপিয়ে জখম

গজারিয়ায় ছাত্রলীগের তিন নেতাসহ ৮জনকে কুপিয়ে জখম
আহতদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের তিন নেতাসহ ৮জনকে কুপিয়ে জখম করেছে দুবৃর্ত্তরা। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টায় গজারিয়া উপজেলার গুয়াগাছিয়া ইউনিয়নের চরচাষী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আহতরা হলেন, গুয়াগাছিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি এবং ইউনিয়ন চেয়ারম্যান (সাবেক) মো: দাইয়ুম খাঁনের ছেলে মুন্সীগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক মো: সজিব হোসেন খাঁন(৩০), উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ফয়সাল আলম খাঁন সেতু(২৭), উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি কামরুল ইসলাম খাঁন(৩৬), একই এলাকার মো: আলাউদ্দিনের ছেলে মো: হাকিম(২৪), সাহাব উদ্দিনের ছেলে মাসুদ মিয়া(২০), আব্দুল খালেকের ছেলে শাকিল আহমেদ(২০), মো: ফিরোজ খানের ছেলে গোলাম মোস্তফা(২৬), মোহাম্মদ আলীর ছেলে সৌরভ(২০), জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে হৃদয় মিয়া(১৮)। আহতদের মধ্যে সজিব, সেতু ও কামরুল ইসলামের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এলাকাবাসী ও আহতদের সূত্রে জানা যায়, গুয়াগাছিয়া ইউনিয়নের চরচাষী গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া একটি সরকারি খাল জোরপূর্বক ও অবৈধ ভাবে ভরাটের কাজ করছিলেন গুয়াগাছিয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবুল খায়ের মোহাম্মদ আলী খোকন। তখন থেকেই ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের সাথে এলাকার কিছু লোকের মতবিরোধ চলছিলো। কয়েকদিন পূর্বে সরকারি খাল ভরাটের খবর পেয়ে উপজেলা সহকারী ভূমি কর্মকর্তা ইমাম আল রাজি (টুলু) উপস্থিত হয়ে ভরাট কাজে বাধা ও নিষেধ প্রদান করেন। সেই সূত্র ধরে শুক্রবার রাতে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবুল খায়ের মোহাম্মদ আলী খোকনসহ সন্ত্রাসীরা ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে আতংক সৃষ্টি করে এলাকাবাসির উপর হামলা চালিয়ে ছাত্রলীগের তিন নেতাসহ ৮জনকে কুপিয়ে জখম করে। পরে এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী দাউদকান্দি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এ বিষয়ে গজারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মামুন আল রশিদ জানান, এঘটনায় ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবুল খায়ের মোহাম্মদ আলী খোকন বাদী হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগটি তদন্ত-পূর্বক দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অপরদিকে গুয়াগাছিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মো: দাইয়ুম খাঁন অভিযোগ করে বলেন, হামলার ঘটনায় তার তিন ছেলেসহ ৮জন আহত হয়েছেন। থানায় তার অভিযোগটি আগে না নিয়ে, তাকে বসিয়ে রেখে বর্তমান চেয়ারম্যানকে ফোন করে আনিয়ে চেয়ারম্যানের অভিযোগটি প্রথমে নিয়েছেন। কিন্তু তার অভিযোগটি গ্রহণ করতে গরিমসি করছেন বলে অভিযোগ করেন।

ইত্তেফাক/এমআরএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত