বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা রোববার, ১২ জুলাই ২০২০, ২৮ আষাঢ় ১৪২৭
২৮ °সে

রাজশাহীর দুই ল্যাবে একদিনে ১২ জনের করোনা শনাক্ত

রাজশাহীর দুই ল্যাবে একদিনে ১২ জনের করোনা শনাক্ত
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল [ফাইল ছবি]

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) এবং হাসপাতালের পৃথক ল্যাবে একদিনে ১২ জনের নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার একজন চিকিৎসক ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমোস্তাপুল উপজেলার একজন মেডিকেল অফিসার রয়েছেন। বুধবার ল্যাব দুইটিতে ২৮২ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

নতুন শনাক্ত হওয়া ১২ জনের মধ্যে রাজশাহীর পাঁচজন, পাবনার তিনজন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের দুইজন ও নাটোরের দুইজন। রাজশাহীতে নতুন পাঁচজন শনাক্ত হওয়ায় করোনা আক্রান্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৬ জনে।

রামেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস জানান, বুধবার হাসপাতালের ল্যাবে ৯৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। যেখানে পাঁচজনের নমুনায় করোনা ধরা পড়ে। এদের মধ্যে রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার তিনজন ও নাটোর জেলার দুইজন। রাজশাহীর বাগমারায় আক্রান্তরা হলেন, রাজিব (৪০), সাইফুল ইসলাম (৩৫) ও রেনুকা (৩০)। আর নাটোরের আক্রান্ত দুইজন নাম রাসেল (৩২) ও উৎপল (২৬)।

এর আগে রামেকের করোনা পরীক্ষা ল্যাবের ইনচার্জ প্রফেসর ডা. সাবেরা গুলনাহার জানান, রামেক ল্যাবে বুধবার দুই শিফটে ১৮৮ জন এর নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তবে ১৬১ জনের নমুনা পরীক্ষার ফল পাওয়া যায়। যেখানে সাতজনের নমুনায় করোনাভাইরাসের উপস্থিতি মিলেছে। এদের মধ্যে পাবনার তিনজন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের দুইজন ও রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার দুইজন। আক্রান্তদের মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জের একজন উপ-সহকারী মেডিকেল অফিসার এবং চারঘাটের একজন চিকিৎসক রয়েছেন।

এরা হলেন, রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার ডা. মো. রেজাউল (৩৪) ও সুমন। চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার সুশান্ত কুমার দাশ (৫২) ও স্বাস্থ্য কেন্দ্রের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার রবিউল (৩৫)। পাবনা সদর উপজেলার ফাহিম মুনতাসির (১৮), রূপালী এবং সাজ্জাদ হোসেন (৩০)।

রাজশাহীতে চিকিৎসকসহ ৬ জন কোয়ারেন্টিনে: রামেক হাসপাতালের ১৬ নং ওয়ার্ডে মারা যাওয়া রবিউল ইসলামের (৪৫) ভর্তির সময় স্বজনরা করোনা উপসর্গের তথ্য গোপন করায় ওয়ার্ডে দায়িত্বে থাকা চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীসহ ছয়জন তার সংস্পর্শে আসেন। বিষয়টি জানার পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওই ওয়ার্ডের দুইজন চিকিৎসক, তিনজন নার্স ও একজন ওয়ার্ড বয়কে কোয়ারেন্টিনে পাঠিয়েছে। রামেক হাসপাতালে উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস বিষয়টি নিশ্চিত করেন। মৃত রবিউল ইসলামের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরে। তিনি পেশায় একজন ফল ব্যবসায়ী। ব্যাবসায়িক কাজে তিনি বিভিন্ন সময় নিজ এলাকার বাইরে চলাফেরা করেছেন।

ডা. সাইফুল ফেরদৌস জানান, রবিউল ইসলামের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ। স্বজনরা বুধবার তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে। রোগী আগেই মারা যায়। প্রথমে রোগীর স্বজনরা জানায়নি রবিউল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। ভর্তি হওয়ার পর জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায় রবিউলের নমুনা ঢাকার ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়েছিল। ফলাফল করোনা পজেটিভ আসে।

ইত্তেফাক/এমআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত