ঘুম থেকে ডেকে তোলে যুবককে খুন, ঘাতক নিহত গণপিটুনিতে

ঘুম থেকে ডেকে তোলে যুবককে খুন, ঘাতক নিহত গণপিটুনিতে
ছুরিকাঘাতে নিহত যুবক নীল উৎপল বাপি। ছবি-ইত্তেফাক

খুলনায় গরু চরানোকে কেন্দ্র করে ছুরিকাঘাতে নীল উৎপল বাপি রপ্তান (২৮) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। অপরদিকে ক্ষুব্ধ গ্রামবাসীর গণপিটুনিতে ঘাতক ইমন শেখও (১৮) মারা গেছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে দাকোপ উপজেলার বাজুয়া এসএন ডিগ্রি কলেজের পাশে এ ঘটনা ঘটে। নীল উৎপল বাজুয়া কলেজের গ্রন্থাগারিক সুকুমার রপ্তানের ছেলে ও ঘাতক ইমন শেখ একই গ্রামের বাদল শেখের ছেলে।

স্থানীয় সূত্র ও পুলিশ জানায়, সোমবার বিকালে বাজুয়া এসএন ডিগ্রি কলেজের মাঠে গরু চরানোকে কেন্দ্র করে কলেজের গ্রন্থাগারিক সুকুমার রপ্তান ও তার ছেলে নীল উৎপলের সঙ্গে ইমন শেখের ঝগড়া হয়। এর জের ধরে মঙ্গলবার সকাল ৮টার দিকে ইমন শেখ ধারালো ছুরি নিয়ে নীল উৎপলের বাড়ি গিয়ে তাকে ঘুম থেকে ডেকে তোলে। নীল উৎপল উঠানে আসলেই কিছু বুঝে উঠবার আগেই ইমন শেখ তার পেটে ছুরিকাঘাত করে। তার আর্তচিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে ধারালো ছুরিসহ ঘাতক ইমনকে আটক করে। গুরুতর আহত অবস্থায় নীল উৎপলকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যায়। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ গ্রামবাসী ঘাতক ইমনকে আটক করে গাছের সঙ্গে বেঁধে গণপিটুনি দেয়। পুলিশ তাকে উদ্ধার করে দাকোপ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ইমনকে মৃত ঘোষণা করেন।

দাকোপ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শফিকুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, গরু চরানোকে কেন্দ্র করে ইমন শেখের ছুরিকাঘাতে নীল উৎপল নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ গ্রামবাসী ঘাতক ইমনকে আটক করে গণধোলাই দেয়। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে দাকোপ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। নিহত দুজনের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ইত্তেফাক/আরকেজি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x