বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০, ৩১ আষাঢ় ১৪২৭
২৯ °সে

উলিপুরে বিলীনের পথে ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত টি-বাঁধ

উলিপুরে বিলীনের পথে ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত টি-বাঁধ
তিস্তা নদীর বাম তীর রক্ষায় নির্মিত টি-বাঁধটি ভাঙনের কবলে। ছবি: ইত্তেফাক

কুড়িগ্রামের উলিপুরে পানি বৃদ্ধির কারণে প্রায় ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে তিস্তা নদীর বাম তীর রক্ষায় নির্মিত টি-বাঁধটি ভাঙনের কবলে পড়েছে। ইতিমধ্যে বাঁধটির টি-পার্টের উজানের বেল মাউথ এর ৫০ মিটার নদী গর্ভে চলে গেছে। অবশিষ্ট টি-বাঁধটি রক্ষায় পানি উন্নয়ন বোর্ড বালু ভর্তি জিও টেক্সটাইল ব্যাগ ডাম্পিং করছেন।

জানা গেছে, ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে প্রায় ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে উপজেলার গুনাইগাছ ইউনিয়নের নাগড়াকুড়া গ্রামে তিস্তা নদীর বাম-তীর রক্ষায় টি-হেড গ্রোয়েনটি নির্মাণ করা হয়। নির্মাণের পর থেকে প্রতি বর্ষা মৌসুমে টি-বাঁধটির বিভিন্ন অংশ ধ্বসে যায়। পানি উন্নয়ন বোর্ড কয়েক দফায় প্রায় কোটি টাকা ব্যয়ে বাঁধটি রক্ষার চেষ্টা করলেও তা কোনো কাজে আসেনি। নির্মাণের পর থেকে টি-বাঁধটিকে ঘিরে অঞ্চলের বিনোদনপ্রেমী মানুষের কাছে বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত হয়।

পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, গত বছর টি-বাঁধের প্রায় ১৩৪ মিটার ধ্বসে গেছে। সম্প্রতি তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধির কারণে তীব্র ¯্রােতে যেকোন মহুর্তে বাঁধটি নদী গর্ভে চলে যেতে পারে।

আরও পড়ুন: চেয়ারম্যান মেম্বারদের চৌকাঠ মাড়িয়ে আশ্বাস মিলেছে কার্ড না

এদিকে, ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে প্রায় ৫ কোটি ৭১ লাখ টাকা ব্যয়ে উপজেলার বজরা ইউনিয়নের তিস্তা নদীর বাম তীর রক্ষায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ স্পার বাঁধ (গ্রোয়েন) নির্মাণ করা হয়। পানি বৃদ্ধির কারণে তলদেশের মাটি সরে গিয়ে গ্রোয়েনটিও যেকোন মুহূর্তে ভেঙ্গে যাওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম বলেন, টি-বাঁধটি রক্ষার জন্য ১০ হাজার বালু ভর্তি জিও টেক্সটাইল ব্যাগ ডাম্পিং এর কাজ চলছে। প্রয়োজনে আরও জিও ব্যাগ ডাম্পিং করা হবে।

ইত্তেফাক/এসি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত