বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭
২৯ °সে

চালু হচ্ছে কাউখালী-সোনাকুর ফেরি সার্ভিস

চালু হচ্ছে কাউখালী-সোনাকুর ফেরি সার্ভিস
কাউখালী উপজেলার সন্ধ্যা নদীতে চালু হচ্ছে কাউখালী-সোনাকুর ফেরি সার্ভিস। ছবি: ইত্তেফাক

বহু প্রতীক্ষার পর অবশেষে কাউখালী-সোনাকুর খেয়াঘাটের সন্ধ্যা নদীতে চালু হচ্ছে কাঙ্খিত ফেরি সার্ভিস। আগামী সপ্তাহে এই ফেরি সার্ভিসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন সাবেক মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এমপি।

জানা গেছে, ১৯৯৬ সালে তৎকালীণ যোগাযোগ মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু কাউখালীর চারদিক নদী বেষ্টিত দুটি ইউনিয়নের জনসাধারণের চলাচলের সুবিধার্থে সোনাকুর-কাউখালী খেয়াঘাটে ফেরি সার্ভিস চালু করেছিলেন। পরবর্তী সরকার ফরি সার্ভিসটি বন্ধ করে দেয়।

সম্প্রতি পিরোজপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য, সাবেক মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এক জনসভায় কাউখালীর সয়না রঘুনাথপুর ইউনিয়নের বাসীর দাবির প্রেক্ষিতে সোনাকুর ফেরি ঘাটটি পুনরায় চালু চালুর ঘোষণা দেন। আনোয়ার হোসেন মঞ্জু ফেরি ঘাটটি স্থাপনের জন্য সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ে ফেরিঘাটটি পুনরায় চালু করার জন্য চিঠি দিলে সম্প্রতি সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের ফেরিঘাট স্থাপনে প্রশাসনিক অনুমোদন দেন। অনুমোদনের পর ঘাট দুটিতে অবকাঠামো নির্মাণে গতি বৃদ্ধি পায়। সম্প্রসারণ করা হয় রাস্তা। ফেরিঘাটে যানবাহন ওঠানামায় নির্মাণ করা হয় অ্যাপ্রোচ রোড। আনা হয়েছে ফেরি এবং দুটি নতুন পণ্টুন।

রবিবার পন্টুন স্থাপনের কাজ শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপ সহাকারি প্রকৌশলী মো.মিজানুর রহমান জানান, করোনা ভাইরাসের কারনে ফেরিটি চালু করতে তিন মাস দেরি হয়েছে।

এলাকাবাসী জানান, কাউখালী-সোনাকুর খেয়াঘাট দিয়ে ফেরি সার্ভিস চালু হলে জেলা সদরের কলাখালী,শ্রীরামকাঠী বন্দর এবং পাশের স¦রুপকাঠীর উপজেলার সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থার অভূতপূর্ব উন্নতি সাধিত হবে। ফেরি সার্ভিস চালু হলে প্রতিদিন যাতায়াতকারী সহস্রাধিক মানুষ উপকৃত হবে। কাউখালীর সঙ্গে পাশের উপজেলার ব্যবসায়িক যোগাযোগ আরও সহজ হবে।

কাউখালী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সাইদ মিঞা মনু বলেন, সাবেক মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এম,পির উদ্যোগে ফেরি সার্ভিসটি পুনরায় চালু হওয়ায় কাউখালী বাসীর দীর্ঘ দিনের দাবি পুরন হলো। এলাকার জনসাধারণ তার দীর্ঘায়ু কামনা করে দোয়া করেছেন। আগামী ১৬ অথবা ১৭ জুলাই তিনি এটি উদ্বোধন করবেন।

এদিকে রবিবার দুপুরে ফেরিঘাট এর কাজ পরিদর্শন করেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সাঈদ মিঞা মনু, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা. খালেদা খাতুন রেখা। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম নসু, পিরোজপুর জেলা পরিষদের সদস্য জাহাঙ্গীর হোসেন, বরিশাল সড়ক ও জনপথে (ফেরি বিভাগ) উপ সহকারী প্রকৌশলী প্রসেনজিৎ, পিরোজপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপ-সহকারি প্রকৌশলী মো.মিজানুর রহমান, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জি.এম সাইফুল ইসলাম ।

ইত্তেফাক/এসি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত