বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭
৩১ °সে

বাড়িয়াদহ চকবস্তা বিলে বাঁধ অপসারণ

বাড়িয়াদহ চকবস্তা বিলে বাঁধ অপসারণ
বাঁধে ব্যবহৃত জাল পুড়িয়ে দেয়া হয়। ছবি : ইত্তেফাক

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বাঞ্ছারামপুরে বাড়িয়াদহ চকবস্তা বিলে আজ মঙ্গলবার জাল দেয়া বাঁধ অপসারণ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। নীতিমালা লঙ্ঘন ও মৎস সংরক্ষণ আইনের পরিপন্থী ইজারাদারের দেয়া বিলে আড়াআড়িভাবে বাঁশের শলা ও চিকন ছিদ্রের জাল দেয়া বাঁধ অপসারণ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই বাঁধ অপসারণ করতে জেলে সমিতিকে নির্দেশ দেয়া হয়।

তারা বাঁধ অপসারণ না করায় আজ মঙ্গলবার দুপুরে সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও বিচারিক হাকিম নাফিসা নাজ নীরা ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এই বাঁধের বাঁশ অপসারণ ও বাঁধে ব্যবহৃত জাল পুড়িয়ে দেয়া হয়। এই বাঁধের কারণে এই এলাকার নৌ চলাচল বন্ধ ও কচুরিপানা জমে বিল পারের জমির ফসল নষ্ট হয়ে যাচ্ছিল।

সহকারী কমিশনার (ভুমি) কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ফরদাবাদ ইউনিয়নের ফরদাবাদ মৌজার ১৭৬ একরের বাড়িয়াদহ চকবস্থা বিলের তিন বছরের জন্য ইজারা নিয়েছেন ফরদাবাদ-রূপসদী দ্বিবর সমবায় সমিতি। এ বছর বিলের ইজারা মূল্য ৮ লাখ ৩৩ হাজার টাকা। ইজারাদার ফরদাবাদ-রূপসদী দ্বি-বর সমবায় সমিতি সদস্যরা বিলে মাছ পালন ও শিকার করার কথা। ইজারাদার বিলে ইজারা শর্ত লঙ্গন করে আড়াআড়িভাবে বাঁশের শলা (মুলি ও সুতা দিয়ে তৈরি বিশেষ এক ধরণের বেড়া) ও চিকন ছিদ্রের জাল দিয়ে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করছেন,এই বাধের কারণে এই বিলে নৌ চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। উপজেলা মৎস কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান খানঁ সরেজমিন পরিদর্শন করেন এবং ইজারাদারের বিরুদ্বে ইজারা শর্ত লঙ্ঘন করায় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তার কাছে একটি লিখিত প্রতিবেদন জমা দেন । উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নাসির উদ্দিন সরোওয়ার এই বাঁধ অপসারন করতে জেলে সমিতিকে নির্দেশ দিন। কিন্তু জেলে সমিতি বাধ অপসারন না করায় আজ এই বাধ অপসারণ করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও বিচারিক হাকিম নাফিসা নাজ নীরা জানান, বিলের ইজারাদারের বিরুদ্বে ইজারা শর্ত লঙ্গন ও মৎস সংরক্ষণ আইনের পরিপন্থী বাধ নির্মাণ করায় ইজারাদারকে বাঁধ অপসারণ করতে নির্দেশ দেয়া হলেও তারা বাঁধ অপসারণ না করায় আজ এই অভিযান পরিচালনা করা হয়।

ইত্তেফাক/কেকে

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত