বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা রোববার, ০৯ আগস্ট ২০২০, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭
৩১ °সে

আগস্টের প্রথম সপ্তাহে বন্যা পরিস্থিতি উন্নতির সম্ভাবনা

মির্জাপুর উপজেলার সঙ্গে ১১ ইউনিয়নের সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন
আগস্টের প্রথম সপ্তাহে বন্যা পরিস্থিতি উন্নতির সম্ভাবনা
ইত্তেফাক ফাইল ছবি।

আগস্টের প্রথম সপ্তাহে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের পূর্বাভাস অনুযায়ী, যমুনা ও ব্রহ্মপুত্রের পানি হ্রাস পাচ্ছে। এ কারণে আগস্টের প্রথম সপ্তাহে এসব নদনদীর তীরবর্তী এলাকায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতির সম্ভাবনা রয়েছে। তবে ঢাকার আশপাশের নদনদীর পানি বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। তাই ঢাকার নিম্নাঞ্চলে আরো পাঁচ দিন বন্যা পরিস্থিতি স্থায়ী হতে পারে। এদিকে বন্যাকবলিত এলাকায় দেখা দিয়েছে বিশুদ্ধ পানি ও খাদ্যসামগ্রীর অভাব। ফসলি জমি তলিয়ে যাওয়ায় গবাদি পশু নিয়েও বিপাকে পড়েছে এসব অঞ্চলের মানুষ। গোখাদ্যের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। বন্যার্তরা ঘরবাড়ি ছেড়ে রাস্তাঘাটসহ উঁচু স্থানে আশ্রয় নিয়েছে। মির্জাপুর উপজেলার সঙ্গে ১১ ইউনিয়নের সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

কালিয়াকৈর (গাজীপুর): কালিয়াকৈরে বন্যার পানিতে উপজেলার নয়টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। হুহু করে বাড়ছে তুরাগ ও বংশী নদনদীর পানি। ঘরবাড়ি, হাটবাজার ও আঞ্চলিক সড়ক তলিয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষ। তুরাগ ও বংশীর পানি বিপত্সীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। দেখা দিয়েছে নদীভাঙন।

নরসিংদী: নরসিংদীতে সুরমা-মেঘনার পানি বাড়লেও বিপত্সীমা অতিক্রম করেনি। সদর উপজেলা ও রায়পুরা উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। শত শত একর ফসলি জমি পানিতে তলিয়ে গেছে। এছাড়া রায়পুরার বাঁশগাড়ী ও চানপুর ইউনিয়নে নদীভাঙন অব্যাহত রয়েছে।

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল): উপজেলা সদরে বন্যার পানি প্রবেশ করেছে। উপজেলার সঙ্গে ১১ ইউনিয়নের সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে বিশুদ্ধ পানিসহ খাদ্যের সংকট দেখা দিয়েছে। বিচ্ছিন্ন রয়েছে বিদ্যুত্। প্রায় ২ লাখ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। কুমুদিনী হাসপাতালের রাস্তাঘাট ডুবে যাওয়ায় চিকিত্সাসেবা ব্যাহত হচ্ছে। করোনা ও বন্যায় কোরবানির পশু নিয়ে বিপাকে পড়েছেন খামারি ও বেপারিরা। উপজেলার প্রায় ৪০০ কিলোমিটার পাকা ও আধা পাকা আঞ্চলিক সড়ক তলিয়ে গেছে। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মো. একাব্বর হোসেন এমপি এবং উপজেলা চেয়ারম্যান মীর এনায়েত হোসেন মন্টু বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শন করে ত্রাণসহায়তা বাড়ানোর নির্দেশনা দিয়েছেন।

সদরপুর (ফরিদপুর): তিন দিন ধরে পদ্মার পানি বিপত্সীমার ১১৯ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পদ্মা ও আড়িয়াল খাঁর চরাঞ্চলে বর্তমানে চাল ছুঁইছুঁই বন্যার পানি। অনেক স্থানে ঘরের চালে পরিবার-পরিজন নিয়ে রোদ-বৃষ্টির মধ্যে বসবাস করছে মানুষ। এদিকে সদরে নবনির্মিত অটোবাইক স্ট্যান্ডটি ভেঙে গেছে। তৃতীয় দফায় পানি বৃদ্ধির কারণে চরাঞ্চলের বানভাসি মানুষ ও গরুর খাদ্যের সংকট দেখা দিয়েছে।

ইত্তেফাক/ইউবি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত