মাদারীপুরের জেলা প্রশাসকের নির্দেশে ৪ উপজেলায় অবৈধ ড্রেজার উচ্ছেদ

মাদারীপুরের জেলা প্রশাসকের নির্দেশে ৪ উপজেলায় অবৈধ ড্রেজার উচ্ছেদ
মাদারীপুরের জেলা প্রশাসকের নির্দেশে ৪টি উপজেলায় অবৈধ ড্রেজার উচ্ছেদ।ছবি: ইত্তেফাক

মাদারীপুরে যোগদানের পর থেকে জনগণের জানমালের নিরাপত্তা প্রদানে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন মাদারীপুরের নবাগত জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন। তিনি জেলার ৪টি উপজেলায় অবৈধ ড্রেজার উচ্ছেদ অভিযান করার জন্য প্রতিটি উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসারদের (ইউএনও) কঠোরভাবে নির্দেশ দেন। তারাই ধারাবাহিকতায় আজ বুধবার (৫ আগস্ট) শিবচর, মাদারীপুর সদর, রাজৈর ও কালকিনি উপজেলায় অবৈধ ড্রেজার উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, বুধবার সকাল থেকে দিনব্যাপী শিবচর উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আসাদুজ্জামান এর নেতৃত্বে উপজেলার দত্তপাড়া, শিরুয়াইল, কুতুবপুর, কাদিরপুর, যাদুয়ারচরসহ বিভিন্ন এলাকায় আড়িয়াল খাঁ ও ময়নাকাটা নদীতে অভিযান পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় নদীতে বালু উত্তোলনের কাজে ব্যবহৃত অবৈধ ড্রেজারের প্রায় ৭ হাজার মিটার পাইপ কেটে ধ্বংস করা হয়। কুতুবপুর এলাকায় একটি ড্রেজার নদীতে ডুবিয়ে দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এম রকিবুল হাসান ও পুলিশের একটি দল উপস্থিত ছিল।

অপরদিকে মাদারীপুর সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. সাইফুদ্দিন গিয়াস এর নেতৃত্বে মাদারীপুর সদরের বিভিন্ন পয়েন্টে অবৈধ ড্রেজারের ওপর মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে। কুলপদ্দী-টু মাদ্রা রাস্তায় অবৈধ ৩টি ড্রেজারের প্রায় ৩হাজার ফিট পাইপ, পুরাতন ফেরিঘাট এলাকায় আরও একটি ড্রেজারের ৫০০ ফিট পাইপ, সরকারি মহিলা কলেজের সামনে থেকে ৩ হাজার ফিট পাইপসহ মোট প্রায় ৬ হাজার ৫০০ফিট পাইপ ধ্বংস করা হয়েছে। এ সময় সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) হোসনে তান্নিসহ পুলিশের একটি ঢিম ছিল। এদিকে একই দিন কালকিনি ও রাজৈর উপজেলার বিভিন্ন নদীতে অভিযান চালিয়ে অবৈধ ড্রেজারের পাইপ কেটে ধ্বংস করেছে প্রশাসন।

মাদারীপুর সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. সাইফুদ্দিন গিয়াস বলেন, জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন স্যারের নির্দেশনায় আমার নেতৃত্বে মাদারীপুর সদরের বিভিন্ন পয়েন্টে অবৈধ ড্রেজারের উপর মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে প্রায় ৬ হাজার ৫০০ ফিট পাইপ ধ্বংস করা হয়েছে।

মাদারীপুরের নবাগত জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন বলেন, ‘জেলার ৪টি উপজেলায় অবৈধ ড্রেজার উচ্ছেদ অভিযান করার জন্য প্রতিটি উপজেলার ইউএনওদের কঠোরভাবে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন নদী থেকে অবৈধ ড্রেজার অপসারণে কাজ শুরু হয়েছে।’

ইতিমধ্যে অনেক ড্রেজারের পাইপ কেটে ধ্বংস করা হয়েছে। বিভিন্ন নদীর মাদারীপুর অংশ অবৈধ ড্রেজারমুক্ত করতে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

ইত্তেফাক/এএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত