প্রবাসীকে চেয়ারম্যান বানাতে বর্তমান চেয়ারম্যানকে ক্রসফায়ারের পরিকল্পনা ওসি প্রদীপের

প্রবাসীকে চেয়ারম্যান বানাতে বর্তমান চেয়ারম্যানকে ক্রসফায়ারের পরিকল্পনা ওসি প্রদীপের
সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার

প্রবাসীকে চেয়ারম্যান বানানোর কন্ট্রাক্ট নিয়ে বর্তমান চেয়ারম্যানকে ক্রসফায়ারে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছে ওসি প্রদীপ কুমারের বিরুদ্ধে।

অর্থের বিনিময়ে অনেকের স্বার্থে কাজ করার অভিযোগও পাওয়া গেছে প্রদীপ কুমারের বিরুদ্ধে।

সম্প্রতি টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক নুরুল হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে চালানো একটি অভিযানে চেয়ারম্যানকেই মাদক মামলায় ফাঁসিয়ে দেন সাবেক ওসি প্রদীপ। অথচ মাদক নির্মূলে নুরুল হোসেনের ভূমিকা প্রশংসনীয় ছিল বলে দাবি তার পরিবার ও স্থানীয়দের।

আরো পড়ুন: ‘ক্রসফায়ার’ আতঙ্ক ছিল টেকনাফের ঘরে ঘরে

অভিযোগ উঠেছে, আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে টেকনাফের দুবাই প্রবাসী ইসমাইল নামে একজনকে চেয়ারম্যান বানানোর কন্ট্রাক্ট নিয়ে প্রদীপ বর্তমান চেয়ারম্যানকে মাদক মামলায় ফাঁসিয়ে নির্বাচনের আগেই ক্রসফায়ারে নেওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন।

ক্রসফায়ারের ভয় দেখিয়ে প্রায় দুই বছর ধরে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা আদায়ের অভিযোগও পাওয়া গেছে প্রদীপের বিরুদ্ধে। মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে হয়রানি, নির্যাতন ও লুটপাটের পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে রয়েছে থানায় আটকে রেখে নারীদের ওপর নিপীড়ন চালানোর অভিযোগও।

আরো পড়ুন: ওসি প্রদীপের ২২ মাসে ১৪৪ ক্রসফায়ার

টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল বশর বলেন, ক্রসফায়ারের নামে মানুষ খুন করা ছিল ওসি প্রদীপের নেশা। ওসি প্রদীপের দালাল স্থানীয় শরিফ মেম্বার প্রকাশ শরিফ বলি ও ছৈয়দ মেম্বার। তাদের মাধ্যমে ঘুষের শতকোটি টাকা চট্টগ্রামে পাঠিয়েছে ওসি প্রদীপ।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত