মুক্তি পেলেন নিহত সিনহার সহযোগী শিপ্রা দেবনাথ

মুক্তি পেলেন নিহত সিনহার সহযোগী শিপ্রা দেবনাথ
স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শিপ্রা দেবনাথ। ফাইল ছবি

কক্সবাজারে পুলিশের গুলিতে নিহত সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহা মো. রাশেদ খানের ডকুমেন্টারি তৈরির সহযোগী ও স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শিপ্রা দেবনাথ অবশেষে জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। রবিবার (৯ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন তিনি। কক্সবাজার জেলা কারাগারের তত্বাবধায়ক (সুপার) মো. মোকাম্মেল হোসেন তার মুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তাকে গ্রহণ করতে জেলগেটে উপস্থিত ছিলেন তার ভাই সৈকত দেবনাথ ও শিপ্রা দেবনাথের আইনজীবী অরূপ বড়ুয়া তপুসহ অন্যরা। মুক্তির পর শিপ্রাকে নিয়ে চলে যান তার ভাই সৈকত দেবনাথ।

আইনজীবী অরূপ বড়ুয়া তপু জানান, রবিবার সিনিয়র জুড়িসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে (রামু) শিপ্রার জামিন চেয়ে আবেদন করা হয়। বেলা ১২টায় শুনানি শেষে কক্সবাজারের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম দেলোয়ার হোসেন জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন। এরপরই দ্রুততার সাথে জামিনের কপি বিশেষ ব্যবস্থায় কারাগারে পাঠানো হয়।

কক্সবাজার জেলা কারাগার সূত্র জানায়, আদালত থেকে শিপ্রার জামিন মঞ্জুরের কাগজ আসার পরপর দ্রুত তা যাচাই-বাছাই করে তাকে মুক্তি দেয়া হয়।

অপরদিকে, সিনহার অপর সঙ্গী সাহেদুল ইসলাম সিফাতের জামিন আবেদনের শুনানি হলেও আদালত এখনও আদেশ দেয়নি বলে জানিয়েছেন সিফাতের আইনজীবী মাহবুবুল আলম টিপু। তিনি জানান, জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম তামান্না ফারাহর আদালতে বেলা পৌনে ১২টায় হত্যা ও মাদকের দুটি মামলায় সিফাতের জামিন আবেদনের শুনানি হয়। একই সঙ্গে মামলার তদন্ত ভার র‍্যাবের কাছে দেওয়ারও আবেদন জানানো হয়। আদালত সোমবার আদেশ দেবে।

উল্লেখ্য, গত ৩১ জুলাই রাতে মেজর (অব.) সিনহা ও সাহেদুল টেকনাফের মেরিন ড্রাইভ সড়ক ধরে হিমছড়ির নীলিমা রিসোর্টে ফিরছিলেন। বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর তল্লাশি চৌকিতে পুলিশের গুলিতে নিহত হন সিনহা মো. রাশেদ খান। ঘটনাস্থল থেকে গ্রেপ্তার করা হয় সাহেদুলকে। তিনি ও শিপ্রা দেবনাথ তিনটি আলাদা মামলায় কারাগারে ছিলেন।

ইত্তেফাক/এসআই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত