মির্জাপুরে ৩৩ হাজার ভোল্টের বিদ্যুতের ২০-২৫ খুঁটি ভেঙ্গে রাস্তার উপর 

মির্জাপুরে ৩৩ হাজার ভোল্টের বিদ্যুতের ২০-২৫ খুঁটি ভেঙ্গে রাস্তার উপর 
৩৩ হাজার ভেল্টেজের বিদ্যুৎ লাইন। ছবি-ইত্তেফাক

বন্যার পানির প্রবল চাপে ৩৩ হাজার ভেল্টেজের বিদ্যুৎ লাইনের ২০-২৫টি খুঁটি ভেঙ্গে রাস্তার উপর ছড়িয়ে ছিটিয়ে পরে থাকায় বিপাকে পড়েছেন এলাকাবাসী। এ নিয়ে তাদের মধ্যে দেখা দিয়েছে চরম আতঙ্ক। খুঁটি ভেঙ্গে পড়ায় যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার ওয়ার্শি-বালিয়া-ধামরাই রোডে এ ঘটনা ঘটেছে। আজ শনিবার এই রোডের বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে ভেঙ্গে পড়া বিদ্যুতের খুঁটি রাস্তার উপর ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে আছে।

আজ শনিবার টাঙ্গাইল পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১, মির্জাপুর জোনাল অফিস সূত্র জানায়, নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের লক্ষে পল্লী বিভাগ ওয়ার্শি-বালিয়া-ধামরাই রোডে পল্লী বিদ্যুতের ৩৩ হাজার ভোল্টেজের নতুন লাইন নির্মাণ করছে। পুরো লাইন নির্মাণ এখনও শেষ হয়নি। লাইনটি নির্মাণ কাজ শেষ হলে মির্জাপুর উপজেলায় লোড শেডিং আর থাকবে না। এছাড়া এই লাইনে ধামরাই থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ হলে ভাতগ্রাম সাবস্টেশন পুরোদমে চালু থাকবে। এদিকে গত দেড় মাসের বন্যার পানি বৃদ্ধির ফলে ওয়ার্শি-বালিয়া রোডের পাশে নির্মিত ৩৩ হাজার ভোল্টেজের বিদ্যুৎ লাইনের ২০-২৫টি খুঁটি ভেঙ্গে রাস্তার উপর পড়ে আছে। বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙ্গে বিপুল পরিমান অর্থের ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে।

টাঙ্গাইল পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১, মির্জাপুর জোনাল অফিসের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) মো. মোর্শেদুল ইসলামের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বন্যার পানির প্রবল চাপে ওয়ার্শি-বালিয়া-ধামরাই রোডের পাশে নব নির্মিত বিদ্যুৎ লাইনের খুঁটি ভেঙ্গে পরে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বিষয়টি বিদ্যুৎ বিভাগের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। বন্যার পানি কমার সঙ্গে সঙ্গে নতুন লাইন পুনরায় দ্রুত নির্মাণ করা হবে।

ইত্তেফাক/আরকেজি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত