জয়পুরহাটে স্ত্রী হত্যা মামলায় স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

জয়পুরহাটে স্ত্রী হত্যা মামলায় স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড
আদালত।

স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা সংক্রান্ত মামলার রায়ে আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১২ টায় জনকীর্ণ আদালতে স্বামী বাবুল সরকারের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করে রায় ঘোষণা করেন আদালত।

জয়পুরহাট অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ এবং ভারপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ মো: গোলাম সারোয়ার আজ এ রায় ঘোষণা করেন।

সাজা প্রাপ্ত স্বামী হচ্ছেন বাবুল সরকার (৫০)। সে গাজীপুর জেলার কালিয়াকৈর উপজেলার শফিপুর তালতলা এলাকার সিরাজ উদ্দিনের ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, পাঁচবিবি উপজেলার রাধানগর এলাকার তুমিজ উদ্দিনের মেয়ে তানজিলা খাতুনকে বিয়ে করে ঘর সংসার করছিলো বাবুল সরকার। দাম্পত্য জীবনের কলহের জের ধরে ২০১৬ সালের ২৩ ডিসেম্বর রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে তানজিলাকে হত্যা করে স্বামী বাবুল সরকার। ওই দিনই পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে ক্ষেতলাল এলাকা থেকে পুলিশ তাকে আটক করে। এ ঘটনায় বোন তৌহিদা খাতুন বাদী হয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে মর্মে ৩০২ ধারায় বাবুল কে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। বাবুল সরকার পরের দিন সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তৌফিকুল ইসলামের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে ।

এ মামলায় পাঁচবিবি থানার এসআই মোখলেসুর রহমান ২০১৭ সালের ২২ মে স্বামী বাবুল সরকারের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন। মামলায় আদালত ১৯ জনে সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আজ বুধবার স্বামী বাবুল সরকারকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ প্রদান করেন।

সরকার পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এ্যাডভোকেট নৃপেন্দ্রনাথ মণ্ডল পিপি ও আসামী পক্ষে ছিলেন এ্যাড: হেনা কবির।

ইত্তেফাক/এমআরএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত