কোটালীপাড়ায় দোকান ঘর নির্মাণকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত ১০

কোটালীপাড়ায় দোকান ঘর নির্মাণকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত ১০
দোকান ঘর নির্মাণকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ।

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় দোকান ঘর নির্মাণকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে ১০জন আহত হয়েছে। সোমবার বিকেলে উপজেলার কলাবাড়ি ই্উনিয়নের কালিগঞ্জ বাজারে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানাগেছে, কলাবাড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাইকেল ওঝা চলতি বছরের আগস্ট মাসে হিজলবাড়ি বিনয় কৃষ্ণ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক তরনী কান্ত অধিকারীর কাছ থেকে কালিগঞ্জ বাজারে সাড়ে ৫ শতাংশ জায়গা ক্রয় করেন। গত সোমবার এই জায়গায় মাইকেল ওঝা দোকান ঘর নির্মাণ করতে গেলে ভাঙ্গারপাড় গ্রামের বিশ্বনাথ ফলিয়ার ছেলে বিভূতি ফলিয়া লোকজন নিয়ে বাঁধা প্রদান করেন। এ সময় দুপক্ষের সংঘর্ষে ১০জন আহত হয়। গুরুতর আহত সমীরণ সরকার (৩৫), প্রতুল সরকার (৫০), মহানন্দ হালদার (৬০), রথীন ফলিয়া (৪৫), উত্তম ফলিয়াকে (৪৮) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন প্রতুল সরকার বলেন, চেয়ারম্যান মাইকেল ওঝা তার ক্রয়কৃত জায়গায় দোকান ঘর নির্মাণ করতে ছিল। দোকান ঘর নির্মাণের শেষ পর্যায়ে এসে বিভূতি ফলিয়া লোকজন নিয়ে এসে দোকান ঘরটি ভেঙ্গে ফেলেন।

চেয়ারম্যান মাইকেল ওঝা বলেন, আমি আমার ক্রয়কৃত জায়গায় দোকান ঘর নির্মাণ করতে গেলে বিভূতি ফলিয়া তার লোকজন নিয়ে বাঁধা দেয় এবং আমার লোকদের মারধর করেন।

এ বিষয়ে বিভূতি ফলিয়ার কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, চেয়ারম্যান মাইকেল ওঝা তার জায়গার বাহিরে আমার জায়গায় ঘর তুলতে গেলে আমি বাঁধা প্রদান করি। এ সময় উভয় পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে আমাদের লোকজনও আহত হয়েছে।

কোটালীপাড়া থানার ওসি শেখ লুৎফর রহমান বলেন, এখন পর্যন্ত কোন পক্ষ থেকে অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগতভাবে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ইত্তেফাক/আরকেজি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত