সিলেটে বিপিসির পেট্রোল কেনা বন্ধের সিদ্ধান্তে তীব্র অসন্তোষ

সিলেটে বিপিসির পেট্রোল কেনা বন্ধের সিদ্ধান্তে তীব্র অসন্তোষ
সিলেট গ্যাস ফিল্ড লিমিটেড থেকে পেট্রোল কেনা বন্ধ রাখার প্রতিবাদে যৌথ সভা। ছবি : ইত্তেফাক

সিলেট গ্যাস ফিল্ড লিমিটেড থেকে পেট্রোল কেনা গত পহেলা সেপ্টেম্বর থেকে বন্ধ রেখেছে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি) এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে গতকাল মঙ্গলবার বিকালে সিলেটের একটি কমিউনিটি হলে যৌথ সভা করেছে বাংলাদেশ ট্যাংকলরি ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন সিলেট বিভাগ, বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলার্স, ডিস্ট্রিবিউটরস অ্যান্ড পেট্রোল পাম্প ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন সিলেট বিভাগ এবং ট্যাংকলরি শ্রমিক ইউনিয়ন সিলেট বিভাগ।

যৌথ সভা থেকে নেতারা বলেছেন, শিগিগরই আগের মতো সিলেট গ্যাস ফিল্ড থেকে পেট্রোল না কিনলে কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হব। বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলার্স, ডিস্ট্রিবিউটরস অ্যান্ড পেট্রোল পাম্প ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন সিলেটের বিভাগীয় সাধারণ সম্পাদক জুবায়ের আহমদ চৌধুরী বলেন, বিপিসি তার অবস্থান থেকে সরে না আসলে সিলেটের মানুষ রাস্তায় নামবে।

একটি ওয়েল কোম্পানির এক কর্মকর্তা গত রাতে জানান, আপতত পেট্রোলের সংকট না হলেও আগামীতে চাহিদা বাড়বে।

গতকালকের যৌথ সভায় জানানো হয়, সম্প্রতি বিপিসি বিএসটিআইর মানের অজুহাত দেখিয়ে সিলেট গ্যাস ফিল্ডের পেট্রোল কেনা বন্ধ করেছে। কিন্তু চট্টগ্রাম থেকে যে পেট্রোল সরবরাহ করছে তা অত্যন্ত নিম্নমানের। এই পেট্রোল কিনে ক্রেতাদের অভিযোগের শেষ নেই। তারা আরো বলেন, গত ৩০ বছর ধরে দেশীয় সম্পদ সিলেট গ্যাস ফিল্ডের পেট্রোল বাজারে রয়েছে। দেশের যানবাহন এই পেট্রোল ব্যবহার করলেও মান নিয়ে প্রশ্ন উঠেনি। যেহেতু সিলেট গ্যাস ফিল্ড রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান সেহেতু, এখান থেকে পণ্য কিনলে সরকার দেশ লাভবান হবে। তারা প্রশ্ন করে বলেন, কার স্বার্থে বিদেশ থেকে পেট্রোল সরবরাহ করা হচ্ছে। বিপিসি পেট্রোল না কিনলে রিফাইনারিগুলোর কাঁচামাল এবং উত্পাদিত পণ্য পরিবহন কাজে নিয়োজিত হাজার হাজার শ্রমিক বেকার হয়ে পড়বে। একই সঙ্গে ট্যাংকলরি মালিকদের লগ্নিকৃত অর্থ ক্ষতির সম্মুখীন হবে। নেতারা বিপিসিকে হুঁশিয়ার করে বলেছেন, আগের অবস্থায় ফিরে না গেলে ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবে।

বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলার্স, ডিস্ট্রিবিউটরস অ্যান্ড পেট্রোল পাম্প ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন সিলেটের বিভাগীয় সভাপতি মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক জুবায়ের আহমদ চৌধুরীর পরিচালনায় কুশিয়ারা কনভেনশন হলে আয়োজিত সভায় নেতারা বলেন, রহস্যজনক কারণে এক অদৃশ্য শক্তির ইশারায় বিপিসি সিলেট গ্যাস ফিল্ডস লিমিটেড থেকে পেট্রোল কেনা বন্ধ রেখেছে।

সূত্র জানায়, ২০১৯-২০ অর্থবছরের হিসাব অনুযায়ী দেশের মোট চাহিদার ৬১ ভাগ পেট্রোল এবং ৮৭ ভাগ কেরোসিন ১৫ ভাগ ডিজেল সরবরাহ করে সিলেট গ্যাস ফিল্ড লিমিটেড।

ইত্তেঠাক/এসি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত