গফরগাঁওয়ে ট্রেনে ছাদ থেকে পড়ে আহত অবস্থায় দেড় ঘণ্টা পড়েছিল কিশোরটি

গফরগাঁওয়ে ট্রেনে ছাদ থেকে পড়ে আহত অবস্থায় দেড় ঘণ্টা পড়েছিল কিশোরটি
ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে চলন্ত ট্রেন থেকে পড়ে এনামুল নামে এক কিশোরের মৃত্যু হয়। ছবি: ইত্তেফাক

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে চলন্ত ট্রেন থেকে পড়ে এনামুল (১২) নামে এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সকালে উপজেলার পাগলা থানার মশাখালী রেলস্টেশন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, খবর দিলেও রেলওয়ে কিংবা রেল পুলিশের কেউ ওই কিশোরকে উদ্ধারে এগিয়ে আসেনি। প্রায় দেড় ঘণ্টা মৃত্যু যন্ত্রণায় কাতরাতে কাতরাতে সেখানেই সে মারা যায়। তবে রেল পুলিশ দাবি, তারা এই ঘটনার খবর তাৎক্ষণিক পান নাই।

এনামুলের বাড়ি পূর্বধলা উপজেলায়। বাবা মোখলেছ মিয়া জয়দেবপুর শহরে রিকশা চালান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে মশাখালী রেলওয়ে স্টেশন থেকে দেওয়ানগঞ্জ কমিউটার ট্রেনটি ছাড়ার পরপরই মশাখালী রেলক্রসিংয়ের সামনে রেলওয়ে স্টেশনের প্লাটফর্ম থেকে ১৫ গজ দূরে চলন্ত ট্রেনের ছাদ থেকে পড়ে যায় এনামুল। এ সময় গুরুতর আহত এই কিশোর প্রায় দেড়ঘণ্টা রেললাইনের ওপর পড়েছিল। খবর দিলেও রেলওয়ে কিংবা রেল পুলিশের কোনো লোকজন তার সাহায্যে এগিয়ে আসেনি।

দেড়ঘণ্টা মৃত্যু যন্ত্রনায় কাতরাতে কাতরাতে প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছে সে তার পরিচয় বলে যায়। এসময় এনামুল আরও জানায়, বাবার কাছ থেকে সংসার খরচের টাকা আনতে সে দুইদিন আগে জয়দেবপুর গিয়েছিল। দুপুর ১টার দিকে গফরগাঁও রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই শহিদুল্লাহ মিয়ার নেতৃত্ব রেলপুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।

গফরগাঁও রেলওয়ে পুলিশ ফাড়িঁর ইনচার্জ মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ মিয়া জানান, নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

কিশোরটি দেড় ঘণ্টা ঘটনাস্থলে পড়ে থেকে মারা গেলো কিন্তু রেল পুলিশ কিংবা রেলওয়ের কেউ এগিয়ে কেন এলো না এ প্রশ্নের জবাবে শহীদুল্লাহ মিয়া বলেন, তাৎক্ষণিক আমাদের কেউ খবর দেয়নি। আমরা অনেক পরে ঘটনাটি জেনেছি।

উল্লেখ্য, গত ২২ সেপ্টেম্বর রাতে গফরগাঁও রেলস্টেশন এলাকায় চলন্ত ট্রেনের ছাদ থেকে ফেলে এক যুবককে হত্যা করে দুর্বত্তরা।

ইত্তেফাক/এসি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত