কানাইঘাটে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার, স্বামী পলাতক

কানাইঘাটে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার, স্বামী পলাতক
সিলেটের কানাইঘাট থানা। ফাইল ছবি

সিলেটের কানাইঘাট উপজেলায় ফাতেমা বেগম নামে এক গৃহবধূর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

উপজেলার সুরইঘাট বাজার সংলগ্ন কালীনগর আগফৌদ পূর্ব (গাঙ্গপার) গ্রাম থেকে শুক্রবার তার মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। ঘটনার পর থেকে তার স্বামীকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

পরিবারের অভিযোগ, পারিবারিক কলহের জেরেই খুন হন ফাতেমা বেগম। নিহতের স্বামী মহরম আলী ঘটনার পর থেকে পলাতক।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার গভীর রাতে পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীর হাতে খুন হন স্ত্রী ফাতেমা বেগম। সকালে ঘরের ভেতর গলাকাটা লাশ দেখে স্থানীয়রা কানাইঘাট থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে।

আরো পড়ুন : ঠাকুরগাঁওয়ে দুই সন্তানসহ পুকুরে মায়ের মরদেহ : চিরকুটে মৃত্যুরহস্য

কানাইঘাট থানা পুলিশের উপ পরিদর্শক (এসআই) স্বপন চন্দ্র সরকার জানান, বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ফাতেমা বেগম খুন হন এবং ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী মরম আলী পলাতক রয়েছে। এতে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- ফাতেমার স্বামী মরম আলী রাতের আঁধারে ফাতেমাকে গলাকেটে হত্যা করেছে।

কানাইঘাট থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, একটি পাকা ঘরের মেঝেতে ফাতেমা বেগমের মৃত দেহ পাওয়া যায়। মেঝেতে জমাট বাধা রক্তের দাগ ও বিছানাসহ আসবাবপত্র এলামেলো পাওয়া গেলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফাতেমা বেগমকে তার স্বামী মহরম আলী গলা কেটে হত্যা করেছে বলে প্রচার করা হয়।

ওসি জানান এ তথ্য ঠিক ছিল না। তিনি বলেন, নিহতের ডান চোখের নিচে, বাম চোখের পাশে, গলা ও নখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করা হয়।

ইত্তেফাক/এসি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত