কলারোয়ায়া একই পরিবারের চারজনকে হত্যা

আরো ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি

আরো ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি
[প্রতীকী ছবি]

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় একই পরিবারের চারজনকে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যার ঘটনায় সম্পৃক্ততার অভিযোগে আরো তিনজনকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি। মঙ্গলবার বিকালে তাদেরকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণে করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, কলারোয়া উপজেলার খলসি গ্রামের আব্দুস সামাদের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (২৮), আবুল কাশেম ঢালীর ছেলে পুলিশের সোর্স হিসাবে পরিচিত আব্দুল মালেক (৩৫) ও ধানঘরা গ্রামের সামছুদ্দীনের ছেলে আসাদুল ইসলাম (২৭)। এদের মধ্যে রাজ্জাক ও মালেক নিহত শাহিনুরের প্রতিবেশী এবং আসাদুল ইসলাম নিহত শাহিনুরের হ্যাচারির কর্মচারী বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সাতক্ষীরা সিআইডির বিশেষ এসপি আনিছুর রহমান তাদের গ্রেফতারের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করে জানান, গ্রেফতারকৃতদের আজ (বুধবার) আদালতে হাজির করে প্রত্যেককে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন জানানো হবে।

সোমবার ও মঙ্গলবার দু’দফা ঢাকা রেঞ্জের সিআইডি’র অতিরিক্ত উপ-মহাপুলিশ পরিদর্শক ওমর ফারুক ও সাতক্ষীরা সিআইডি’র বিশেষ পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে স্থানীয় ও নিহতদের স্বজনদের সাথে কথা বলেন।

উল্লেখ্য, গত ১৫ অক্টোবর ভোর রাতে কলারোয়া উপজেলার হেলাতলা ইউনিয়নের খলসি গ্রামের শাহাজান আলীর ছেলে মৎস্য হ্যাচারি মালিক শাহিনুর, তাঁর স্ত্রী সাবিনা খাতুন, ছেলে সিয়াম হোসেন মাহী ও মেয়ে তাসনিম সুলতানাকে নির্মমভাবে কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। তবে, ভাগ্যক্রমে বেঁচে যায় তাদের পাঁচ মাসের শিশু কন্যা মারিয়া সুলতানা। ওই দিন রাতে শাহিনুরের শাশুড়ি ময়না খাতুন বাদী হয়ে কলারোয়া থানায় অজ্ঞাতদের আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয় সিআইডি পুলিশকে। হত্যার দিনই প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয় নিহতের ছোটভাই রায়হানুলকে। পরের দিন রায়হানুলকে হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। বর্তমানে রায়হানুল ৫দিনের পুলিশ রিমান্ডে রয়েছে।এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নিহত শাহিনুর রহমানের ছোট ভাই রায়হানুল ইসলামসহ এখন পর্যন্ত ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি।

আজাদুর রহমান খান চৌধুরী

ইত্তেফাক/এমআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত