জুয়ারি ছেলের হাতে বাবা খুন

জুয়ারি ছেলের হাতে বাবা খুন
খুনে অভিযুক্ত ছেলে শরিফুল ইসলাম। ছবি: ইত্তেফাক

রাজশাহীর পুঠিয়ায় গরু ব্যবসায়ী অহির বক্স (৫৮) খুনের রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় গ্রেফতারের পর ১৬৪ ধারায় আদালতে জবানবন্দী দিয়েছেন নিহতের ছেলে শরিফুল ইসলাম। পরে আদালত তাকে কারাগারে পাঠায়।

শনিবার পুঠিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হাসমত আলী জানান, ১৯ অক্টোবর সকালে স্ত্রীসহ অহির বক্স আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে গেলে ছেলে শরিফুল ইসলাম জুয়া খেলার ঋণের টাকা পরিশোধ করতে তার পিতার পকেট থেকে ১৮ হাজার টাকা চুরি করে। অহির বক্স দুপুরে বাড়ি ফিরে ওই টাকা না পেয়ে ছেলেকে জিজ্ঞাসা করেন। তখন ছেলে শরিফুল টাকা নেয়ার কথা স্বীকার করে। পরে অহির বক্স ওই টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য শরিফুলকে চাপ দেন। কিন্তু শরিফুল টাকা ফেরত দিতে অস্বীকার করে।

এক পর্যায়ে পিতা অহির বক্সকে জোরে ধাক্কা মারে শরিফুল। এতে অহির বক্স চৌকির কর্নারে পড়ে অজ্ঞান হয়ে পড়েন। তখন শরিফুল তার পিতার জ্ঞান ফিরানোর জন্য বুকের উপর চাপা দিলেও তার জ্ঞান ফিরেনি। একপর্যায়ে সে বুঝতে পারে যে তার পিতা মারা গেছেন। তখন শরিফুল নিজে বাঁচার জন্য তার পিতার লাশ চৌকির উপর রেখে বাড়ির গেটে তালা লাগিয়ে বাইরে চলে যায়।

এরপর রাতের অন্ধকারে বাড়ি ফিরে শরিফুল পিতার লাশ পিঠে বহন করে বাড়ির পাশের আম বাগানে ফেলে আসে। পরে ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে বাড়ি ফিরে তরকারি কাটা হাসুয়া দিয়ে পিতার লাশের দুই পায়ের রগ কেটে দেয়। এরপর চলে তার অভিনয়। রাতে শরিফুলের মা ফিরে স্বামীর খোঁজ করলে শরিফুল বলে- বাবা বিকালে বাড়ি থেকে গেছেন, আর ফিরেনি।

পরের দিন ২০ অক্টোবর সকালে স্থানীয় লোকজন বাড়ির পাশে একটি আম বাগানে তার লাশ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেন। ওই দিন নিহতের স্ত্রী জরিনা বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা করেন।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত