কচুয়ার বরখাস্ত সেই চেয়ামর‌্যান শিশির অসুস্থ হয়ে কারাগার থেকে হাসপাতালে

কচুয়ার বরখাস্ত সেই চেয়ামর‌্যান শিশির অসুস্থ হয়ে কারাগার থেকে হাসপাতালে
কচুয়ার বরখাস্ত সেই চেয়ামর‌্যান শিশির অসুস্থ হয়ে কারাগার থেকে হাসপাতালে। ছবিঃ ইত্তেফাক

চাঁদপুর সদরে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ও কচুয়া উপজেলায় শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের উপ-সহকারী প্রকৌশলীকে মারধরের ঘটনায় দায়ের করা দু’টি মামলায় চাঁদপুর কচুয়া উপজেলা পরিষদের বরখাস্ত হওয়া সেই চেয়ারম্যান শাহজাহান শিশির অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি।

বুধবার (২৮ অক্টোবর) দুপুরে তাকে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসার পর কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে দেখে শারীরিক অবস্থা ভালো না থাকায় উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল হাসপাতালে রেফার করেন।

কচুয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান শিশিরের বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার পর তিনি গত ২৫ আগস্ট চাঁদপুর আদালতে স্বেচ্ছায় হাজির হয়ে আদালত জামিনের জন্য আবেদন করেন। বিচারক জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে প্রেরণ করেন।

দীর্ঘ দুই মাস তিনি জেলহাজতে থাকা অবস্থায় বুকে ব্যথা, ডায়াবেটিস ও ক্যান্সার জনিত কারণে আক্রান্ত হওয়ায় চিকিৎসার জন্য তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

আরো পড়ুনঃ নতুন পরমাণু কেন্দ্র তৈরি হচ্ছে ইরানে :জাতিসংঘ

চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) ডা. হাসিবুল হাসান আসিফ ও সার্জিক্যাল ডাক্তার মনিরুল ইসলাম তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণ করে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল হাসপাতালে নেওয়ার জন্য পরামর্শ দেন। উল্লেখিত ওই রোগগুলো শিশিরের শরীরের আগ থেকেই ছিলো।

ডা. হাসিবুল হাসান আসিফ বলেন, জেলা কারাগারে চিকিৎসা না থাকায় আজকে শাহজাহান শিশির নামে একজন কয়েদিকে নিয়ে আসা হয়। আমরা তার প্রয়োজনীয় পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে এই হাসপাতালে সকল চিকিৎসা না থাকায় উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কিংবা ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার জন্য পরামর্শ দিয়েছি।

পরে কারা কর্তৃপক্ষ ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা তাকে সদর হাসপাতাল থেকে কুমিল্লা মেডিকেল হাসপাতালে যাত্রা করেন।

কচুয়া শিক্ষা উপ-সহকারী প্রকৌশলী নুরে আলমকে মারধরের ঘটনায় দায়ের করা মামলা শাহজাহান শিশির হাইকোর্ট থেকে জামিন পায়। কিন্তু ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলায় তিনি হাইকোর্ট থেকে জামিন পেলেও রাষ্ট্রপক্ষ আট সপ্তাহের জন্য জামিন আদেশ স্থগিত করেন। পরে চাঁদপুর আদালতে হাজির হলে বিচারক জামিন না মঞ্জুর করেন।

ইত্তেফাক/এমএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত