ডেলিভারি বয় থেকে যেভাবে জঙ্গি শান্ত

ডেলিভারি বয় থেকে যেভাবে জঙ্গি শান্ত
শাহজাদপুরের উকিলপাড়ায় জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের অভিযানে আটক চার জঙ্গি। ছবি : সংগৃহীত

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের উকিলপাড়ায় জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের অভিযানে আটক সন্দেহভাজন চার জঙ্গির মধ্যে আমিনুল ইসলাম ওরফে শান্তর (২২) বাড়ি তালা উপজেলার খলিলনগর ইউনিয়নের দক্ষিণ নলতা গ্রামে। তিনি যশোরের মনিরামপুর উপজেলার অবসরপ্রাপ্ত আনসার ব্যাটালিয়ান সদস্য বজলুর রহমানের ছেলে।

তবে তালার দক্ষিণ নলতা গ্রামে দীর্ঘদিন ধরে মায়ের সাথে বসবাস করতেন তিনি। এছাড়া তিনি একই গ্রামের শরিফুল মোড়লের জামাতা।

জানা গেছে, সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে জঙ্গি আস্তানা থেকে শুক্রবার সকালে র‌্যাবের অভিযানে আটক আমিনুল ইসলাম শান্তর বর্তমান ঠিকানা তালার দক্ষিণ নলতা গ্রামে। তিনি দক্ষিণ নলতা গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য ও শিক্ষক জি.এম. মোস্তাফিজুর রহমান তিতুর ভাগ্নে।

আমিনুল ইসলাম শান্তর মামা মোস্তাফিজুর রহমান তিতু জানান, মনিরামপুর সদরের বজলুর রহমানের সঙ্গে তার বোন রোকসানা খাতুন বিথির বিয়ে হয় এবং তাদের একমাত্র সন্তান আমিনুল ইসলাম শান্ত। একাধিক বিবাহিত প্রতারক বজলুর রহমান বিয়ের পর সন্তান ও স্ত্রীর খোঁজখবর নেয়া বন্ধ করে দেয়। ফলে বিথি তার সন্তান আমিনুল ইসলামকে নিয়ে আমাদের এখানে থাকতো।

মোস্তাফিজুর রহমান তিতু আরো বলেন, অনার্স পাস করার পর আমিনুল ইসলাম প্রেমের সূত্রে একই গ্রামের শরিফুল মোড়লের মেয়ে হাবিবা খাতুনকে বিয়ে করে। এই বিয়ে নিয়ে পারিবারিক বিরোধ সৃষ্টি হলে তার মা বিগত প্রায় ২ বছর ধরে আলাদা বসবাস শুরু করে। এ সময় আমিনুল ইসলাম শান্ত খুলনায় ফুড পান্ডা নামের একটি খাদ্য সরবারহকারী প্রতিষ্ঠানে ডেলিভারি বয়ের চাকরি শুরু করে। এখানে চাকরি করাকালে শান্তর ধর্মীয় রীতি পালনে পরিবর্তন আসে এবং মামা বাড়ির সাথে তার যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। খুলনায় চাকরি করাকালে সে বিপথগামী হতে পারে।

আমিনুলের স্ত্রী হাবিবা খাতুন জানান, তার স্বামী খুলনায় চাকরি করতেন। তিনি বিশ্বাস করতে পারছেন না তার স্বামী জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে জড়িত থাকতে পারেন।

স্থানীয় ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোজাম্মেল আলী শেখ বলেন, এলাকায় আমিনুলকে কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকতে দেখা যায়নি। সাতক্ষীরায় পড়াশোনা করার সময় কোনো সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন কি না, তা তিনি বলতে পারবেন না।

তালা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মেহেদি রাসেল বলেন, আমিনুলের বিরুদ্ধে থানায় কোনো অভিযোগ কিংবা মামলা নেই।

ইত্তেফাক/ইউবি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত