কুস্তি খেলায় রাজি না হওয়ায় কিশোরকে হত্যা

কুস্তি খেলায় রাজি না হওয়ায় কিশোরকে হত্যা
সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। ছবি: সংগৃহীত

সিলেট নগরীর পশ্চিম পীরমহল্লায় ১৪ বছরের কিশোর লিটন মিয়াকে লাথি ও কিল-ঘুষি দিয়ে আহত করার পর সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় সে।

পুলিশ জানায়, শনিবার সকালে নগরীর এয়ারপোর্ট থানার পশ্চিম পীরমহল্লায় মো. শিরন মিয়ার ছেলে মো. লিটন মিয়াকে একই এলাকার কালাম আহমেদের ছেলে মো. রাহুল পারভেজ (২০) কুস্তি খেলার প্রস্তাব দেয়। এতে লিটন রাজি না হওয়ায় রাহুল ক্ষিপ্ত হয়ে লিটনকে লাথি ও কিল-ঘুষি মারতে থাকে। এসময় প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে লিটনকে উদ্ধার করে বাসায় পাঠায়।

বাসায় গিয়ে লিটন অসুস্থ হয়ে পড়লে পরদিন তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার সকালে লিটন মারা যায়। এ ঘটনায় লিটনের পিতা মো. শিরন মিয়া বাদি হয়ে এসএমপির এয়ারপোর্ট থানায় মামলা (নং-৫৫) দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত মো. রাহুল পারভেজকে ধরতে পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে বলে জানান, মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) বিএম আশরাফ উল্লাহ তাহের।

ইত্তেফাক/এসআই

Nogod
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত