বিএনপির মেয়র ও ১২ কাউন্সিলর প্রার্থীর নির্বাচন বর্জন

বিএনপির মেয়র ও ১২ কাউন্সিলর প্রার্থীর নির্বাচন বর্জন
ছবি: সংগৃহীত

বাগেরহাটের মোংলা পোর্ট পৌরসভা নির্বাচনে কারচুপি ও কেন্দ্র দখলের অভিযোগ এনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী মো. জুলফিকার আলী ও ১২ জন কাউন্সিলর প্রার্থী নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন। শনিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় মোংলা মাদরাসা রোডে জুলফিকার আলীর বাসায় নির্বাচনি অফিসে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তারা এ ঘোষণা দেন।

সকাল ৮ টায় নির্ধারিত সময়ে মোংলা পৌরসভার ১২ টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। চালনা বন্দর ফাজিল মাদরাসা কেন্দ্রে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন দেখা যায়। নারীদের উপস্থিতি বেশি লক্ষ্য করা গেছে।

জুলফিকার আলী সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি নেতাকর্মীদের মারধরের অভিযোগ তোলেন। তিনি বলেন, আমার সামনেই আমার আত্মীয়-স্বজনসহ নেতাকর্মীদের মারধর করা হয়েছে। জেলা নির্বাচন অফিসার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে বলার পরেও তারা গুরুত্ব দেয়নি।

নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়ে তিনি বলেন, বহিরাগতদের ছত্রছায়ায় প্রকাশ্যে ভোট কারচুপি করা হচ্ছে। আমার সমর্থকরা যেনো নির্যাতনের শিকার না হয় সেজন্য আমি এবং ১২ জন কাউন্সিলর প্রার্থী নির্বাচন বর্জন করলাম।

নির্বাচনে আওয়ামী লীগের আব্দুর রহমান, বিএনপির জুলফিকার আলী এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মোকছেদুর রহমান গামা মেয়র পদে নির্বাচন করছেন। এছাড়া নয়টি সাধারণ ওয়ার্ডে ৩৫ জন কাউন্সিলর ও তিনটি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১২ জন মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

মোংলা পৌর এলাকার ভোটার সংখ্যা ৩১ হাজার ৫২৮ জন। এর মধ্যে ১৬ হাজার ৬৮১ জন পুরুষ এবং ১৪ হাজার ৮৪০ জন নারী ভোটার রয়েছেন।

ইত্তেফাক/এএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x