আশুলিয়ায় মাদ্রাসার শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগে অধ্যক্ষ গ্রেফতার

আশুলিয়ায় মাদ্রাসার শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগে অধ্যক্ষ গ্রেফতার
ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার মাদ্রাসা অধ্যক্ষ তৌহিদ বিন আজহার।ছবি:ইত্তেফাক

সাভার উপজেলার আশুলিয়ায় ১১ বছরের এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসার অধ্যক্ষকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) গভীর রাতে রাজধানীর মিরপুরের কাফরুল এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। অভিযুক্ত ওই অধ্যক্ষের নাম তৌহিদ বিন আজহার (৬৫)। তার বাড়ি নাটোর জেলায় বলে জানা গেছে। শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) দুপুরে আটক অধ্যক্ষ তৌহিদ বিন আজহারকে ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: ধর্ষণ প্রতিরোধে আমাদের করণীয়

পুলিশ জানায়, গত ১৫ জানুয়ারি আশুলিয়া ইউনিয়নের খেজুরবাগান এলাকায় হুরে জান্নাত মহিলা মাদ্রাসা ও নূরে মদিনা মাদ্রাসার আবাসিক এক ছাত্রীকে চা বানানোর কথা বলে নিজ কক্ষে ডেকে নিয়ে যায় ওই প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ তৌহিদ বিন আজহার। সেখানে ১১ বছর বয়সী ওই শিশু ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ এবং বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য ভয়ভীতি দেখানো হয়। একপর্যায়ে মাদ্রাসার হোস্টেলে থাকা ওই ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়লে সে তার সহপাঠীদের মাধ্যমে বিষয়টি চিরকুট লিখে মা-বাবার কাছে পাঠায়। এঘটনায় গত বুধবার পরিবারের পক্ষ থেকে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আজহারকে প্রধান আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করা হলে গা ঢাকা দেয় ধর্ষক অধ্যক্ষ। পরে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে উন্নত প্রযুক্তির সহায়তায় রাজধানীর মিরপুরের কাফরুল এলাকায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত মাদ্রাসার অধ্যক্ষকে আটক করে পুলিশ।

আরও পড়ুন: র্ষণ প্রতিরোধে ইসলামি নির্দেশনা

বিষয়টি নিশ্চিত করে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আল-মামুন কবির জানান, ধর্ষণের শিকার শিশুটিকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি এবং অভিযুক্ত মাদ্রাসা শিক্ষককে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

ইত্তেফাক/এমএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x